মঙ্গলবার,২২ অক্টোবর ২০১৯
হোম / রূপসৌন্দর্য / চটজলদি সাজতে
১০/০৭/২০১৯

চটজলদি সাজতে

রূপচর্চা

-

ছুটছে সময়, সঙ্গে ছুটছে জীবন যাত্রাও আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা মেকআপ করার সময় কারও নেই। তবে নিজেকে তো টিপটপ রাখতেই হবে। তবে সময়ের অভাবে যদি মেকআপ নিয়ে চিন্তিত, তাহলে জানিয়ে রাখি আপনার দুশ্চিন্তার দিন শেষ। দরকার শুধু মেকআপ কিটে কিছু এসেনশিয়াল আইটেমের উপস্থিতি আর কিছু স্মার্ট মেক-আপ টেকনিক রপ্ত করে ফেলা। চটজলদি সেজে আপনিই হয়ে উঠবেন সকলের মধ্যমণি রইল আপনার জন্য কিছু টিপস।

ফেস মেকআপ

প্রথমে মাইল্ড ক্লিনজার দিয়ে মুখ আর গলা পরিষ্কার করে নিন। বডি লোশন কিংবা বডি বাটার লাগিয়ে নিন। প্রথমে ভালো করে টিন্টেড ময়শ্চারাইজার লাগান। হালকা ময়শ্চারাইজার স্মুদ বেস ফিনিশ তৈরি করতে সাহায্য করে। মুখে কোনও দাগ থাকলে কনসিলার ব্যবহার করুন। ফাউন্ডেশন বাছাটা কিন্তু একটু মুশকিল। ফাউন্ডেশন কেনার সময় মুখে একটু লাগান। হাতেও লাগাতে পারেন। যদি দেখেন আপনার ত্বকের সঙ্গে মিশে যাচ্ছে, তা হলেই বুঝবেন যে, এটাই আপনার জন্যে রাইট চয়েস। এগুলো পর পর ফেস মেক-আপে ব্যবহার করলে তো ভালোই হয়, কিন্তু ব্লেন্ড করার ঝামেলায় না যেতে চাইলে বিবি অথবা সিসি ক্রিম লাগাতে পারেন। মেকআপ হয়ে গেলে একটু ফেস পাউডার পাফ করে নিন। একটা ব্রাশ দিয়ে গালের বাইরের দিকে ব্রনজার ডাস্ট করে নিন। তবে দিনের চেয়ে রাতে ব্রনজড়ার লাগানোই ভালো। হাইলাইটার ত্বকের সুন্দর দিকগুলোকে যেমন তুলে ধরে, সেখানে ব্রনজার ত্বকে গ্ল্যামারাস শাইন তৈরি করে।

লিপ আই মেকআপ ইনস্ট্যান্ট গ্ল্যামের জন্য চটপট ব্রাইট আই লাইনার লাগিয়ে নিন, এক্সপেরিমেন্ট আপত্তি না থাকলে রঙিন আই লাইনার দারুণ লাগবে। আইলিডের ওপর নিউট্রাল শেডের আইশ্যাডো লাগাতে পারেন। একটা কথা মনে রাখবেন, আই মেকআপ করতে বসলে মাস্কারা কিন্তু মাস্ট! ইলাবোরেট আই মেকআপ না করতে পারলেও অবশ্যই মাস্কারা লাগাবেন। তাছাড়া, সুন্দর করে শেপ করা আইব্রো কিন্তু আপনার গোটা লুকটাই বদলে দিতে পারে।

হেয়ার স্টাইল

বুদ্ধি খাটালে কিন্তু তাড়াহুড়োর মধ্যেও বেশি সময় না দিয়ে সুন্দর হেয়ারস্টাইল করে ফেলা যায়। আগের দিন রাতে হালকা হাতে মুজবা ক্রিম লাগিয়ে নিন। এবার দুটো বিনুনি করে শুয়ে পড়ুন। সকালবেলা উঠে দেখবেন কেমন সুন্দর সফট কার্লস পেয়ে গিয়েছেন! হাই পনিটেল করে চুল ২-৪ ভাগে ভাগ করে নিন (চুলের ঘনত্বের উপর নির্ভর করে) এবার প্রতিটা সেকশন কার্লারের সাহায্যে কার্ল করে নিন। চুলের তাপমাত্রা স্বাভাবিক হয়ে এলে পনিটেল খুলে ফেলুন। পেয়ে যান অনবদ্য কার্লি হেয়ারস্টাইল! টপ নট করে ফেলুন, সঙ্গে লাগিয়ে নিন মানানসই হেয়ার অ্যাকসেসরি, সময়ও বাঁচল, স্টাইলও হলো! হেয়ার ডু করার জন্যে হাতে বিশেষ সময় নেই? সি€úল পনিটেল করুন। অল্প একটু হেয়ার স্প্রে লাগিয়ে নিন। চুল ঘেঁটে যাবে না। খোলা চুলে স্টাইল করতে চাইলে, চুল উল্টে নিয়ে ব্যাক কো€^ করে নিন, ইনস্ট্যান্ট ভলিউম পেয়ে যাবেন। সুন্দর ব্যাক ক্লিপ দিয়ে চুল আটকে রাখতে পারেন।

কুইক বিউটি টিপস

মেকআপের আগে একটা ফেশিয়াল করতে পারলে ভালো। স€¢ব না হলে এক্সফোলিয়েট করতে পারেন বা ফেশিয়াল মাস্কও লাগাতে পারেন। ইলাবোরেট মেকআপ না করলেও চলবে, শুধু নিজের মুখের সবথেকে সুন্দর অংশটিকে হাইলাইট করুন। আই লাইনার ও মাস্কারা অন্যরকমভাবে ব্যবহার করে চোখের নতুন শেপ দিতে পারেন, ব্লাশার দিয়ে চিকবোন হাইলাইট করতে পারেন, ব্রাইট নেল কালার ট্রাই করতে পারেন। বহুদিনের ফেলে রাখা ফাউন্ডেশন আর অনেক পুরনো লিপস্টিক দিয়ে মেকআপ করলে আপনার সাজ খুব একটা খুলবে না। তাই মেকআপ কিটে ঠিকঠাক জিনিস রাখুন। বিবি ক্রিম, কনসিলার, লিপ কালার, নানা ধরনের ব্রাশ কিন্তু মাস্ট। চেষ্টা করুন ভালো ব্র্যান্ডের মেকআপ প্রোডাক্টস কিনতে। খরচ একটু বেশি হতে পারে, কিন্তু দীর্ঘদিন মেকআপ ভালো থাকে আর এর থেকে ত্বকের ক্ষতি হওয়ার স€¢াবনাও কম। চোখের ওপর গোল্ড ও সিলভার শেড থাকায় আর বিশেষ কিছু মেকআপ না করলেও হবে।

চটজলদি মেকআপের পিছনে বেশি না খেটেও গ্ল্যামারাস লুক পেতে চাইলে জোর দিন জুতো, ব্যাগ আর অ্যাকসেসরিজের উপর। যেমন, চাঙ্কি কানের দুল, স্কার্ফ, নজরকাড়া নেকপিস অথবা ব্রাইট কালারের ব্যাগ ক্যারি করতে পারেন। আর অবশ্যই খাওয়া দাওয়া বিষয়টি আপনাকে মাথায় রাখতেই হবে।



- ফাতেমাতুল মনীষা
বিউটি এক্সপার্ট
পিংক ব্লাশ বিউটি লাউঞ্জ