শুক্রবার,২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
হোম / খাবার-দাবার / স্যান্ডউইচ বেগুনি
০৪/০১/২০১৬

স্যান্ডউইচ বেগুনি

-

আলপনা হাবিব
জনপ্রিয় রন্ধনশিল্পী আল্পনা হাবিব নিজ গুণে সমাদৃত। তার রান্না স্বাদে এবং স্বকীয়তায় সমানভাবে প্রশংসিত। নববর্ষে মেনু হিসেবে এবার অনন্যার পাঠকদের জন্য তিনি দিয়েছেন দেশিয় রান্নার নিজস্ব রেসিপি।


উপকরণ
বেগুন- তেরছা চাক করে কাটা ১০ টুকরা
নারকেল বাটা- ১/২ কাপ
সাদা সরিষাবাটা- ১/২ কাপ
কাঁচামরিচ কুচি- ১ টেবিল চামচ
ধনেপাতা কুচি- ১/২ কাপ
রসুনবাটা- ১ চা-চামচ
সরিষার তেল- ২ টেবিল চামচ
ময়দা- ১/২ কাপ
চালের গুঁড়ো- ১/২ কাপ
তিল- ২ টেবিল চামচ
জোয়ান- ১/২ চা-চামচ
চিনি- ২ চা-চামচ
হলুদগুঁড়ো
মরিচগুঁড়ো
জিরাগুঁড়ো

প্রণালি
বেগুনের মাঝখান থেকে অর্ধেক করে এমন ভাবে স্লাইস করতে হবে যাতে পুরো দুই পিস না হয়ে একটু আটকে থাকে। নারকেল, সরিষাবাটা, কাঁচামরিচ কুচি, ধনেপাতা কুচি, অর্ধেক হলুদ, মরিচ ও জিরাগুঁড়ো, চিনি, লবণ ও সরিষার তেল একসাথে মাখতে হবে। এবার বেগুনের স্লাইসের মধ্যে এই পুর মাখিয়ে ভরতে হবে। অন্য একটি পাত্রে ময়দা, চালের গুঁড়ো, লবণ, তিল, জোয়ান, বাকি হলুদ, মরিচ ও জিরাগুঁড়ো ১ টেবিল চামচ সরিষার তেল দিয়ে মেখে পানি দিয়ে গোলা তৈরি করে নিন। পুরভরা বেগুনি গুলো সেই গোলায় ডুবিয়ে ডুবো তেলে মচমচে করে ভেজে তুলতে হবে। পরিবেশনের পাত্রে সাজিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন। এই বিশেষ বেগুনভাজাটি আমার নিজের তৈরি করা। ঝমঝমে বৃষ্টির দিনে গরম গরম খিচুড়ির পাতে মচমচে এই বেগুনি খুবই তৃপ্তিকর। এছাড়া বিকেলে জলযোগেও এটি একটি সুস্বাদু আইটেম হতে পারে।