সোমবার,২২ এপ্রিল ২০১৯
হোম / ফ্যাশন / ফ্যাশনে নতুন ট্রেন্ড : ওয়াইড লেগ প্যান্ট
০৪/১১/২০১৯

ফ্যাশনে নতুন ট্রেন্ড : ওয়াইড লেগ প্যান্ট

-

বেশ দীর্ঘদিন ধরেই ফ্যাশনের ধারায় রাজত্ব করে চলেছে পালাজ্জো। এসেছে এর কাটিং আর স্টাইলে নানান ভিন্নতা। তবে সম্প্রতি সেই একই ঘরানায় ওয়াইড লেগ প্যান্টও স্থান করে নিতে শুরু করেছে ফ্যাশন ফ্যাশন সচেতনদের ওয়ার্ডরোবে।
পালাজ্জো আর ওয়াইড লেগ প্যান্ট দু’ই প্রায় একই গোত্রের। পালাজ্জো বলতে গেলে ওয়াইড লেগ প্যান্ট গোত্রেরই সদস্য, শুধু এর নিজস্ব কিছু বিশেষত্ব আছে। পালাজ্জো প্যান্ট কোমর থেকে পায়ের গোড়ালি পর্যন্ত ছড়ানো হয়। অন্যদিকে ওয়াইড লেগ প্যান্ট-এর তুলনায় পালাজ্জোর তুলনায় একটু চাপা শেপের হয়ে থাকে।

পালাজ্জোর কাটিং আর ঘেরের কারণে স্কার্টের সঙ্গে এর মিল পাওয়া যায়। অন্যদিকে ওয়াইড লেগ প্যান্ট অনেকটাই ফর্মাল প্যান্টের সমতুল্য। উপরের অংশে চাপা এবং নিচে কিছুটা ছড়ানো, এছাড়া সমান কাটের ওয়াইড লেগ প্যান্ট বেশ ফ্যাশনেবল।
কাপড় বাছাইয়ের ক্ষেত্রেও দুইয়ের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। জর্জেট, লিনেন, সিল্ক এই ধরনের কাপড় পালাজ্জো বানানোর জন্য উপযুক্ত, এতে মনমতো ঘের এবং ফ্লো পাওয়া যায়। অন্যদিকে ওয়াইড লেগ প্যান্টের ক্ষেত্রে যে-কোনো ধরনের কাপড় বেছে নেওয়া যেতে পারে। সুতি, ভেলভেট, সিল্ক ইত্যাদি কাপড়ের পাশাপাশি যে-কোনো পছন্দসই ফেব্রিকই উপযোগী।
ওয়াইড লেগ প্যান্ট প্রায় সব উপলক্ষের জন্যই মানানসই। ফর্মাল মিটিং বা পার্টি যে-কোনো ক্ষেত্রেই এই প্যান্ট উপযোগী। সেই তুলনায় পালাজ্জো অনেকটাই ক্যাজ্যুয়াল একটি পোশাক।

অনুষ্ঠান বা ক্যাজুয়াল পোশাক হিসেবে গরমে পরে আরাম পালাজ্জো। শর্ট কামিজ, মিড লং বা লং কামিজ দিয়ে পরা যায় পালাজ্জো। নকশা করা বা প্রিন্টেড পালাজ্জোর সঙ্গে একরঙা টপস, আর একরঙা পালাজ্জোর সঙ্গে নকশাদার জামা পরলে মানায় ভালো।
কামিজ ছাড়াও ফতুয়া, অল্প ঢোলা বা ফিটেড শার্টের সঙ্গে ওয়াইড লেগ প্যান্ট ভালো যায়। টপস বা শার্ট ইন করেও ওয়াইড লেগ প্যান্ট পরা যেতে পারে।

ওয়াইড লেগ প্যান্ট যেহেতু বেশ ঢোলা এবং ছড়ানো এর সঙ্গে কিছুটা ফিটিং টপস বা শার্ট পরা উচিত। নতুবা দেখতে বেমানান লাগতে পারে।
সত্তরের দশকের ফ্যাশন স্টেটমেন্ট ওয়াইড লেগ প্যান্ট আধুনিক ফ্যাশনেও স্থান করে নিয়েছে। সঠিক টপস এবং অনুষঙ্গের সঙ্গে মানিয়ে উপস্থাপন করা গেলে নিজেকে ভিন্নভাবে তুলে ধরা যেতে পারে।

ওয়াইড লেগ প্যান্ট বেছে নেওয়ার আগে নিজের শারীরিক গঠন সম্পর্কে জানা উচিত। কারণ এটা অস্বীকার করার কোনো অবকাশ নেই যে, যে-কোনো পোশাকই কতটা সুন্দর লাগবে অথবা বেমানান দেখাবে তা অনেকটাই নির্ভর করে শারীরিক গঠনের উপর।
যাদের শারীরিক গঠন অনেকটা নাশপাতির মতো তাদের জন্য ওয়াইড লেগ প্যান্ট বেশ উপযোগী। এছাড়া যাদের কোমরের নিচের অংশ উপরের তুলনায় কিছুটা খাটো তাদের জন্যও এই প্যান্ট বেশ মানানসই।
ফ্লেয়ার্ড বটমের সঙ্গে ফিটিং টপস বেছে নেওয়া জরুরি। চাইলে বাড়তি স্টাইলিংয়ের জন্য শ্রাগ বা কটি চাপাতে পারেন। ওয়াইড লেগ প্যান্ট-এর সঙ্গে কোমরে বেল্ট পরা যেতে পারে। এতে স্ট্রাকচার ভালোভাবে ফুটে ওঠে।

ওয়াইড লেগ প্যান্টের সঙ্গে লম্বা কুর্তি বা কামিজও পরা যেতে পারে। এক্ষেত্রে কামিজের ঘের এবং প্যান্টের মধ্যে সামঞ্জস্যতা রাখতে হবে। তাছাড়া সাদা রঙের একটি ওয়াইড লেগ প্যান্ট হতে পারে যে কারো ওয়ার্ড্রোবের গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। কারণ সাদা প্যান্টের সঙ্গে পরার জন্য টপস বা কামিজ নিয়ে বেশি মাথা ঘামাতে হবে না। ‘কি পরবো’ এমন দিনগুলোতে এই প্যান্ট মুশকিল অনেকটাই আসান করে দিতে পারে।
পালাজ্জো বা ওয়াইড লেগ প্যান্ট এদের সঙ্গে বেছে নিন উঁচু হিল। কারণ এতে দেখতে যেমন ফ্যাশনেবল লাগবে তেমনি প্যান্টের ফ্লেয়ারও সুন্দর দেখাবে।
যে-কোনো পোশাকই বেছে নেওয়ার আগে এর ধরন সম্পর্কে ধারণা নিয়ে রাখা জরুরি। পাশাপাশি আপনার জন্য পোশাকটি কতটুকু মানানসই সব ভেবে তারপরই পোশাকটি বেছে নিন।

-অদ্বিতী