শুক্রবার,২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
হোম / খাবার-দাবার / কইমাছের কড়াই পাতুরি
০৪/০১/২০১৬

কইমাছের কড়াই পাতুরি

-

ফাতিমা আজিজ
রান্নাবিদ ফাতিমা আজিজের নতুন করে পরিচয় দেয়ার কিছু নেই। স্বনামধন্য পুষ্টিবিদ ও রান্নাবিশারদ সিদ্দিকা কবিরের ভাগ্নি সবার প্রিয় ফাতিমা আপার রেসিপি ছাড়া নববর্ষ মেনু যেন রয়ে যায় অসম্পূর্ণ। বৈশাখের প্রথম দিনের বিশেষ আয়োজনের জন্য তাই তিনি দিয়েছেন বিশেষ রেসিপি।

উপকরণ
কইমাছ- ৬ থেকে ৮টি (১ কেজি)
টকদই- ১ কাপ, ফেটানো
টমেটো পিউরি- ৩ টেবিল চামচ
২টি কাঁচামরিচ দিয়ে সাদা সর্ষেবাটা ১/৪ কাপ
কাঁচামরিচবাটা- ১ টেবিল চামচ অথবা পছন্দমতো
কাঁচামরিচ- ৪টি, চেরা
নারকেল- ৩ টেবিল চামচ, কোরানো
লবণ- দেড় চা-চামচ/ স্বাদ অনুযায়ী
হলুদগুঁড়ো- ১ চা-চামচ
মরিচগুঁড়ো- ১ চা-চামচ
সরিষার তেল- ১৫০ গ্রাম
চিনি- দেড় চা-চামচ
ধনেপাতাকুচি- ১ আঁটি

প্রণালি
মাছ ভালো করে আঁশ ছাড়িয়ে পেটের ময়লা পরিষ্কার করে ধুয়ে ১/২ চা-চামচ লবণ দিয়ে মেখে ১৫/২০ মিনিট রেখে দিন। তারপর হাত দিয়ে ভালো করে কচলে ৩/৪ বার খলিয়ে নিন বা ধুয়ে নিন। এবারে ঝাঁঝরিতে ঢেলে পানি ঝরিয়ে নিন। একটি মিক্সিং বোলে টমেটো পিউরি, ফেটানো টকদই, কোরানো নারকেল, সর্ষেবাটা, কাঁচামরিচবাটা, হলুদগুঁড়ো, মরিচঁগুড়ো, লবণ ও চিনি দিয়ে মসৃণ করে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এবারে মশলার এই মিশ্রণে কইমাছগুলো নিয়ে দু’পিঠেই যেন মশলা লেগে থাকে, সেভাবে মেখে নিন। কড়াই ধুয়ে উপুর করে রাখুন। পানি ঝরে গিয়ে কড়াই শুকালে তাতে সরিষার তেল ঢালুন। এবারে একটি একটি করে মাছ সেই তেলের উপর বিছিয়ে দিন। তারপর ঢেকে মাঝারি আঁচে ১০ মিনিট রান্না করে আঁচে কমিয়ে আরও ২০ থেকে ২৫ মিনিট রান্না করুন। পানি বেশি থাকলে আঁচ বাড়িয়ে ঢাকনা খুলে পানি টানিয়ে নিন। তবে খেয়াল রাখবেন যেন পোড়া না লাগে। ডানদিক থেকে বা দিক, বা দিক থেকে ডান দিক ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে নিবেন। এবারে ঢাকনা খুলে ধনেপাতাকুচি ও চেরা কাঁচামরিচ দিয়ে ঢেকে ৫ মিনিট পর চুলা বন্ধ করে দিন। গরম ভাত বা হলুদ ভাতের সাথে গরম গরম পরিবেশন করুন।