সোমবার,২২ এপ্রিল ২০১৯
হোম / রূপসৌন্দর্য / পিঠের যত্নে
০৩/১৬/২০১৯

পিঠের যত্নে

-

পিঠের অবস্থা যেহেতু নিজ চোখে দেখা বেশ কঠিন, তাই এর পরিচর্যায় আমরা অনেক অবহেলা করি। কিন্তু পোশাক পরার পর ঝকঝকে কোমল পেলব পিঠ আপনাকে যে পরিমাণ আকর্ষণীয়করে তুলবে তার জন্য আপনি পিঠের যত্ন নিয়মিত করতে সহজেই কনভিন্সড হবেন।কিছু সহজলভ্য ঘরোয়া উপাদানেই করতে পারেন পিঠের পরিচর্যা।

ভালোমতো ঘষে পরিষ্কারকরে নিন পিঠ

সৌন্দর্যের সর্বপ্রথম ও প্রধান শর্ত হলো পরিচ্ছন্নতা। পরিষ্কার ও পরিচ্ছন্ন ত্বকের দীপ্তিময় সৌন্দর্য আর আত্মবিশ্বাসের কাছে হরেকরকমের মেক-আপের লুকোচুরি হার মানতে পারে যে-কোনো সময়ই। লুফা বা সুবিধাজনক আকারের ব্রাশ দিয়ে পিঠের ত্বক ভালোমতো ঘষে পরিষ্কার করে নিন যেন জমে থাকা তেল, ধুলোবালি ও ময়লা থেকে না যায়। যদি আপনার পিঠে আগে থেকেই ব্রণ বা অ্যাকনি থাকে তাহলে বেনজয়েল পারঅক্সাইড আছে এমন সাবান বা বাথজেল ব্যবহার করুন।

স্ক্রাব করুন

নিয়মিত স্ক্রাব করলে ত্বকের বিভিন্ন দাগ ও ব্ল্যাকহেডস দূর হয় এবং ত্বক নরম, মসৃণ ও দীপ্তিময় থাকে। তাই আপনি পিঠখোলা পোশাক পরার পরিকল্পনা করলে অবশ্যই প্রতি একদিন পর পর পিঠে স্ক্রাব করুন। আপনার পিঠের ত্বকের ধরন বুঝে বাড়িতেই থাকে এমন সাধারণ কিছু উপকরণ মিশিয়ে একটি ব্লেন্ডারের সাহায্যে বানিয়ে নিন স্ক্রাবের পেস্ট।

আরো কিছু স্ক্রাব

সি-সল্ট ও বেকিং সোডা মিশিয়ে স্ক্রাব করতে পারেন বডি পলিশ হিসেবে।
এক কাপ ইন্সট্যান্ট ওটমিলের সঙ্গে একটি ডিম মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। প্রথমে পিঠ ধুয়ে তারপর মুছে নিন, পেস্টটি পুরো পিঠে দিয়ে ১৫ মিনিট রেখে দিন। এরপর পানি দিয়ে ভালোমতো পেস্টটি পরিষ্কার করে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।
ওটমিলের সঙ্গে লেবুর রস ও ভালো কোনো ক্রিম মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। পিঠে ১০ থেকে ১৫ মিনিট এই পেস্ট বৃত্তাকারে পিঠে ঘষুন, তারপর পানি দিয়ে ভালোমতো ধুয়ে নিন।
লেবুর রস প্রাকৃতিকভাবেই একটি ব্লিচিং এজেন্ট। সরাসরি এটি পিঠে ব্যবহার করতে পারেন। কোনো কোমল স্ক্রাব বা মাস্ক ব্যবহারের আগে একটি লেবু অর্ধেক করে কেটে নিয়ে ভালোমতো ঘষুন। এভাবে পিঠের অনমনীয় ত্বককে বেশ উজ্জ্বল করে তুলতে পারেন।
ময়েশ্চারাইজ করুন নিয়মিত

পিঠ স্ক্রাব ও পরিষ্কার করার পরে ভালোমতো ময়েশ্চারাইজ করতে ভুলে যাবেন না। এর জন্য দামি ময়েশ্চারাইজার দরকার নেই। এছাড়া প্রতিদিন গোসল করা বা শাওয়ার নেওয়ার আগে আপনার প্রতিদিনের ব্যবহারের ক্রিম বা বেবি অয়েল ঘষে নিন পুরো পিঠে। এছাড়া আপনার যদি দিনের বেলায় পিঠখোলা পোশাক পরার পরিকল্পনা থাকে তবে অবশ্যই পিঠে ব্যবহার করুন ভালো কোনো সানস্ক্রিন লোশান।

সাধারণ ত্বকের জন্য : চালের গুঁড়া, মধু ও দুধ প্রতিটি নিন এক টেবিল চামচ করে, সাথে দিনকয়েক ফোঁটা পুদিনা তেল। পেস্ট বানিয়ে পিঠে বৃত্তাকারে মাসাজ করুন। ১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

শুষ্ক ত্বকের জন্য : চিনি, অলিভ অয়েল, দুধ ও গ্লিসারিন প্রতিটি নিন এক টেবিল চামচ করে, সাথে দিন কয়েক ফোঁটা প্যাচুলি বা পুদিনা তেল। পেস্ট বানিয়ে পিঠে বৃত্তাকারে মাসাজ করুন। ১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।
তৈলাক্ত ত্বকের জন্য : মধু ও সি-সল্ট প্রতিটি নিন এক টেবিল চামচ করে, সাথে দিন কয়েক ফোঁটা পুদিনা তেল। পেস্ট বানিয়ে পিঠে বৃত্তাকারে মাসাজ করুন। ১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। দীপ্তিময় ত্বকের জন্য আরেকটি পেস্ট তৈরি করতে পারেন বেসন, মুগডাল, কাঁচা দুধ ও কয়েক ফোঁটা প্যাচুলি বা পুদিনা তেল দিয়ে।

প্রয়োজনে নিন চিকিৎসকের পরামর্শ

আপনার পিঠে যদি অতিরিক্ত ব্ল্যাকহেডস, কালো বা অন্য কোনো দাগ, অ্যাকনি বা উচুঁ তিল থাকে তাহলে আপনার সব পরিচর্যায় পানি ঢেলে দিতে পারে সেগুলো। এমন সমস্যায় চিকিৎসকের পরামর্শ নিন সময়মতো।

কিছু মেকআপের লুকোচুরি

পরিচ্ছন্ন সুন্দর ত্বকের দীপ্তির কোনো বিকল্প নেই। তবে বাড়ি থেকে বের হওয়ার আগে কিছু ওয়াটারপ্রুফ বডি ফাউন্ডেশান পিঠে দিয়ে তার উপরে হালকা কমপ্যাক্ট পাউডার লাগিয়ে নিন। কিছু বাড়তি দীপ্তির জন্য সোনালি আভাযুক্ত ফাউন্ডেশান ব্যবহার করতে পারেন।

-কাজী শাহরিন হক