রবিবার,২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮
হোম / ভ্রমণ / ভ্রমণপ্রিয় তরুনদের মাস্ট ডেস্টিনেশনস
০৮/১১/২০১৮

ভ্রমণপ্রিয় তরুনদের মাস্ট ডেস্টিনেশনস

-

পৃথিবীতে অলৌকিক সৌন্দর্যে পরিমন্ডিত স্থান রয়েছে অসংখ্য। একজীবনে সব কিছু দেখা না গেলেও, যৌবনে ভ্রমণ আরম্ভ করে দিলে অনেক কিছুই দেখতে পারবেন এই অদেখা পৃথিবীর নানা প্রান্তে। সাধ্যের মধ্যে বন্ধুবান্ধব কিংবা উদ্যমী কোনো ভ্রমণপিপাসু অথবা ট্যুর গ্রুপের সাথে পাড়ি জমাতে পারেন নানান
গন্তব্যে। কোথায়, জানিয়ে দিচ্ছি।

পালোয়ান, ফিলিপাইন
স্বচ্ছবালির সৈকত, নীরব শান্ত স্ফটিকের মতো পানি এবং হরেকরঙের সিফুড, এই সব অনুভব করতে চাইলে আপনার যেতে হবে পালোয়ান দ্বীপপুঞ্জে। অপার্থিব সৌন্দর্যের এই ডেস্টিনেশানে যেতে হয় ফিলিপাইনের মূল দ্বীপ থেকে নৌকায় করে। পালোয়ানের কিছু কিছু স্থান একেবারে মোবাইল কভারেজের বাইরে। দ্বীপের হোটেলগুলোর ভাড়া তুলনামূলক কম এবং খাওয়াদাওয়ার জন্য বেশ ভালো কিছু হোটেল রয়েছে, তাই তরুণ পর্যটকদের কাছে এই স্থানটি বেশ জনপ্রিয়। অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্টের রোমাঞ্চের জন্যও এই দ্বীপ বেশ নামকরা। স্কুবা ড্রাইভিং, কাইয়াকিং এবং হাইকিং করে সুন্দর সময় উপভোগ করতে পারবেন সেখানে।

বেনারস, উত্তর প্রদেশ, ভারত
ভারতের উত্তর প্রদেশের বেনারসকে বলা হয় পৃথিবীর অন্যতম প্রাচীনতম সভ্যতার শহর। ইতিহাস বলে বেনারসে ঘাঁটি বেঁধেছিল আরিয়ানরা। কালক্রমে মুলসিম, হিন্দু, বৌদ্ধ সকলের সংস্কৃতির মেলবন্ধনে বেনারস এক প্রত্বতাত্ত্বিক আকর্ষণে পরিণত হয়েছে। গঙ্গার পার ধরে নৌকায় চরে বেনারস শহর ঘুরে এলে দেখতে পারবেন এই উপমহাদেশের আসল রূপ। অন্যরকম এক অভিজ্ঞতার জন্য ঘুরে আসতে পারেন ভারতের এই অঞ্চলে।

হা লং বে, ভিয়েতনাম
দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার ভিয়েতনামে আছে পৃথিবীর সবচেয়ে দৃষ্টিনন্দন বেশ কয়েকটি সৈকত। তাদের মধ্যে অন্যতম হা লং বে। নীলকান্তমণির স্বরূপ পানির মাঝে দেখতে পাবেন প্রকৃতির অনন্যসৌন্দর্য। পাহাড় দেখবেন দূর থেকে, তবে কাছে গিয়ে দেখবেন সেই পাহাড় উঠে এসেছে সমুদ্রের মাঝ থেকে। নৌকায় চড়ে ঘুরতে পারবেন সহস্র ছোট আঁকারের দ্বীপে। সাশ্রয়ী এবং নিরাপদ হওয়ায় ভিয়েতনাম তরুণ ভ্রমণপ্রেমিকদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। সুদূর অ্যামেরিকা কিংবা ইউরোপ থেকেও দলে দলে টুরিস্ট আসে ভিয়েতনামের সৌন্দর্য উপভোগ করতে।

নেপাল
পর্বতেঘেরা নেপাল তরুণ তরুণীদের কাছে ব্যাকপ্যাকিং-এর জন্য একটি অদ্বিতীয় গন্তব্য। সুবিশাল বরফে ঢাকা পর্বত, সবুজবৃক্ষ, নদী, পাথর এবং হিমালয়ের বিশুদ্ধ বাতাস পর্যটকদের দেয় এক অনন্যঅভিজ্ঞতা। টুরিস্ট নির্ভর অর্থনীতির ফলে নেপালে বেড়াতে গেলে নিরাপত্তা নিয়ে কোনো চিন্তা করা লাগে না। কাঠমান্ডু এবং পোখারা শহরে আছে সবার জন্য সকল শ্রেণির হোটেল-মোটেল। খাওয়ার জন্য আছে হরেকরকম রেস্তোরাঁ। অপার্থিব প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের মাঝে অ্যাডভেঞ্চার করারও সুযোগ আছে অনেক।

ভূটান
স্বর্গের কাছে যদি যেতেই হয় জীবিত অবস্থায়, আপনার যেতে হবে ভুটানে। হিমালয়ের কাছে ছোট্ট আঁকারের ভূটান বর্তমানে পৃথিবীতে একমাত্র কার্বন-নেগেটিভ দেশ। ভূটানে প্রাকৃতিক বন এবং সবুজ তাদের খাসজমি থেকে বেশি। বরফগলা পানির প্রবাহের কারণে ভূটানের মাটি উর্বর এবং রীতিমতো জীবন্ত। আপেল, কমলা, বাদাম ছাড়াও সেখানে ব্লু পাইন গাছ দেখা যায়। শীতকালে রাস্তায় দেখবেন সাদা বরফের ছড়াছড়ি। পারোর টাইগার্স নেস্টে যেতে হলে হাইক করতে হবে প্রায় ৩০০০ মিটার উচ্চতায়, তাও ঘন পাইন বনের মাঝ দিয়ে। বুঝতেই পারছেন, ভূটানে তরুণদের জন্য রোমাঞ্চের শেষ নেই।

বালি, গিলি, লাম্বক
ইন্দোনেশিয়ার দ্বীপমালা আগ্নেয়গিরির অগ্নুৎপাতের ফলে সমুদ্রের মাঝে কোনো এক সময় জেগে উঠেছে। এই দেশের বালি, মাটি এবং পানি, সব কিছুই যেন ভিন্ন। বালির ট্রপিক্যাল সৈকত বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত টুরিস্ট ডেস্টিনেশান। অন্যদিকে গিলি এবং লম্বক দ্বীপে আছে অজস্র পানির ঝরনা এবং পর্বতমালা। কোনো স্থানে আছে হট স্প্রিংস, আবার কোনের দ্বীপের পাশেই আছে কোরাল রিফ। স্কুবা ডাইভিং, প্যারাগ্লাইডিং, স্নরকলিং ইত্যাদি এডভেঞ্চার স্পোর্টস ছাড়াও সাশ্রয়ী হোটেল এবং খাওয়ার জন্য ইন্দনেশিয়া বিশ্বখ্যাত, মূলত তরুণ ট্রাভেলারদের কাছে।

টিপস
* বিদেশ ভ্রমণের বেশ আগে থেকেই বাজেটিং করা জরুরি।
* যে দেশে যাবেন সেখানের সংস্কৃতিকে সম্মান করা আবশ্যক। তাই কোথাও যাওয়ার আগে সেখানের মানুষের আচার-ব্যবহার, নিয়ম-কানুন সম্পর্কে জেনে নিন।
* একলা ট্রাভেল করতে চাইলে ইন্টারনেটে খবর নিয়ে হোস্টেল কিংবা বাজেট হোটেল বেছে নিন, তাহলে খরচ কমে আসবে অনেকটাই।

- কাজী মাহদী