বুধবার,২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
হোম / রূপসৌন্দর্য / ভ্রুর যত যত্ন-আত্তি
০৭/১৮/২০১৮

ভ্রুর যত যত্ন-আত্তি

-

পাখির নীড়ের মতো চোখ ছিল কার যেন? কার আবার! নাটোরের বনলতা সেনের। বনলতা সেনের সেই চোখের মতো চোখ কে-না চায়! চোখের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে ভ্রুর ভূমিকা অনস্বীকার্য। জীবনানন্দ দাশ বনলতা সেনের ভ্রুর সৌন্দর্য দেখেই এমন পঙক্তি রচেছিলেন কিনা কে জানে! সে যাই হোক, হলফ করে বলা যায়, আপনিও খুব করে চান আপনার চোখও হোক বনলতার চোখের মতো। কিন্তু স্রষ্টা তো সবাইকে জন্ম থেকেই সবকিছু দিয়ে দেন না। বেশিরভাগ জিনিসই ‘গড়ে’ নিতে হয়। তো আপনি চোখ গড়বেন কিভাবে? আসুন দেখি, বলছি।

চলে যান বিশেষজ্ঞের কাছে
যাব্বাবাহ! এ আবার কেমনতরো পরামর্শ! এ তো সবাইই জানে...! উঁহু, জানে না। জানলেও ঠিকমতো মানে না। আমরা এখানে প্রথমেই এই পরামর্শ দিচ্ছি যেন আপনি জানেন, আগে জেনে থাকলেও মনে করিয়ে দিলাম এবং এখন আপনি খানিকটা গুরুত্বও দিয়ে মানবেনও বটে। তো চলে যান বিউটিশিয়ানের কাছে আর তাকে খানিকটা সুযোগ দিন আপনার চেহারা নিয়ে কারিকুরি করার।

ওয়্যাক্স করাবেন?
সোজা জবাব দিলেন ‘হ্যাঁ’। চোখের আশপাশের অঞ্চলের ত্বক কিন্তু খুবই সংবেদনশীল। ওয়্যাক্স করাবেন কিনা ভেবে দেখুন। আর যদি আই-ব্রাও ওয়্যাক্স করতেই চান তা হলে অবশ্যই ভালো পার্লারে যাবেন।

একজোড়া চিমটা
এবার চলে এলাম কাজের কথায়। আপনি নিজে নিজে ভ্রুর যত্ন নেবেন তো? একজোড়া চিমটা আপনার লাগবেই।

চেহারার মাপটা দেখুন
চেহারার সাথে মানানসই করে ভ্রুর আকার-আকৃতি ঠিক করে নিতে হবে, নতুবা ভালো কিছু আশা করা যাবে না। নিজের চেহারা নিয়ে খানিকটা জরিপ চালিয়ে নেবেন ভ্রু ঠিক করার আগে। খুব বেশি মোটা বা একেবারে পাতলা ভ্রু নিয়ে লোকজনের হাসির পাত্র হওয়ার কোনো মানে হয় না।

ব্রাশ করুন
এটা অনেকেই আজকাল অহরহই করছেন। বাইরে বেরোবার আগে খানিকটা সময় করে ভ্রুগুলোকে সুন্দর করে আঁচড়ে জায়গামতো সাজিয়ে নিন। আর হ্যাঁ, সামান্য পরিমাণে হেয়ার স্প্রেও ব্যবহার করতে পারেন দীর্ঘক্ষণ ভ্রু সোজা রাখার জন্য।

আইলাইনারের ব্যবহার
আপনার আফসোস, আপনার ভ্রুজোড়া খুব পাতলা! তো আফসোস করলে নিশ্চয়ই গাঢ় আর ঘন হয়ে যাবে না। তারচেয়ে বরং হাতে তুলে নিন আপনার পছন্দের রঙের পেন্সিল আইলাইনার। এবার শিল্পী হয়ে চোখের ওপরের জমিনটাকে ক্যানভাস বানিয়ে তুলির আঁচড় কাটুন। ব্যস!

চোখ বড় করতে
মিনারেল কম্প্যাক্ট পাউডার নিয়ে মেকআপ ব্রাশ দিয়ে সুন্দর করে চোখের চারপাশে ব্লেন্ড করে দিন। চোখের ঔজ্জ্বল্য বাড়বে। আর যেটা করতে পারেন তা হলো চোখের নিচের অংশে হালকা রঙের হাইলাইটার ব্যবহার করুন। তাতেও চোখ বড় মনে হবে। আপনার বয়সও অনেক কমে যাবে!

ভুরু ঘন করতে
* নিয়মিত এক্সফোলিয়েট করলে ভুরু ঘন হয়। বেবি ব্রাশের সাহায্যে ভ্রুর অংশে গোল গোল করে ব্রাশ করতে থাকুন। যে দিকে ভ্রুর গ্রোথ সে দিকে সার্কুলার মুভমেন্টে ব্রাশ করবেন।

* অলিভ অয়েল, ভিটামিন ই অয়েল ও ক্যাস্টর অয়েল কিউ টিপের সাহায্যে ভুরুতে লাগান। এতে শুধু যে ভুরু হবে তা নয়, ভুরুর স্বাস্থ্যও ভাল থাকবে।

* ডায়েটে রাখুন পর্যাপ্ত পরিমাণ প্রোটিন, ভিটামিন এ, ই এবং কে, আয়রন, জিঙ্ক, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ও এসেনশিয়াল ফ্যাটি অ্যাসিড।

* সিরাম- বাজারে অনেক রকম ভাল মানের সিরাম পাওয়া যায়। নিজের পছন্দমতো বেছে নিন। ভুরুতে নিয়মিত সিরাম লাগালে ভুরু ঘন হবে।

- সাজ্জাদুর রহমান