শনিবার,২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮
হোম / বিনোদন / তানজিন তিশার মুখোমুখি
০৭/১৭/২০১৮

তানজিন তিশার মুখোমুখি

-

ছোট পর্দায় সময়ের ব্যস্ততমদের একজন তিনি। অভিনয়ের পাশাপাশি মডেলিং, উপস্থাপনাও করে চলেছেন সমানতালে। আগে র‌্যাম্পেও নিয়মিত ছিলেন। বলছিলাম তানজিন তিশার কথা। বহুমুখী প্রতিভাধর এই নারীর এবার অনন্যার মুখোমুখি হয়েছেন।

গত ঈদে গুণী নাট্যনির্মাতা মাবরুর রশীদ বান্নাহর নির্দেশনায় বিভিন্ন চ্যানেলে এবং ইউটিউবে সাতটি নাটকে অভিনয় করেন তিশা। নাটকগুলো হলোঃ ‘চশমায় লেগে থাকা ভালোবাসা’, ‘কুরিয়ার সার্ভিস’, ‘হোম টিউটর’, ‘ব্রাজিল ভার্সেস আর্জেন্টিনা’, ‘বোধ’, ‘বোন’ ও ‘ছাত্র’। এই ঈদে একের পর এক মানসম্পন্ন কাজের মাধ্যমে দর্শকদের মাঝে আরও জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন তিশা। অভিনয়ে উন্নতির গ্রাফ সুস্পষ্ট, এত এত নাটকের ভিড়ে আলাদা করে নজর কেড়েছেন তিনি। ঈদের কাজ নিয়ে তিশা জানান, ‘এবারের ঈদের কাজগুলোর জন্য বেশ ভালো সাড়া পাচ্ছি। দর্শকের ভালোবাসাই আমার আগামীর পথে এগিয়ে চলার অনুপ্রেরণা।’

একজন অভিনেতা জীবনে নিজেকে বারবার প্রমাণের তাগিদ থাকাটা জরুরি। ভিন্ন ভিন্ন চরিত্র অনুযায়ী নিজেকে প্রতিবার আলাদা করে গড়ে তোলাটাও দরকার। তিশা তা জানেন ভালো করেই এবং তাই উঠে এল তার পরের কথায়। ‘আমি নিজেকে অভিনয়ে আরও ভাঙতে চাই। একজন সত্যিকারের অভিনেত্রী হিসেবেই নিজেকে গড়ে তুলতে চাই। যারা আমার অভিনয়ের প্রতি আস্থা রেখে আমাকে নিয়ে কাজ করেন তাদের প্রতি আমি আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।’ তিনি এরইমধ্যে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন ঈদুল আযহার কাজ নিয়ে। সামনের ঈদেও তাই বিভিন্ন নাটকে দেখা যাবে তাকে এমন আশা করা যায়।

তিশা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে উদগ্রীব পাঠকের সংখ্যা কম নয়। আলাপচারিতায় ব্যক্তিজীবনের নানাদিকও তাই উঠে এল। তানজিন তিশা চার বোনের মধ্যে সবার ছোট। পরিবারের প্রথম তিনিই শোবিজে কাজ করছেন। ছোটবেলা থেকে নাচের তালিম নিলেও মিডিয়াতে নিয়মিত হননি। ২০১১ সালে এসে শখের বশে ফ্যাশন শো, ফটোশুটে কাজ করা শুরু করেন। ২০১২ সালের মাঝামাঝি সময়ে কাজ করেন রবির বিজ্ঞাপনচিত্রে। অমিতাভ রেজার নির্মিত এই বিজ্ঞাপনটিই ছিল তার শোবিজ ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট। এরপর দেশিয় মিউজিক ভিডিওতে মডেল হিসেবে তিশার পারফর্মেন্স খুব প্রশংসিত হয়। তিশা ২০১২ সালে ইউটিউবে প্রচারিত রিজভি ওয়াহিদ এবং শুভমিতার গাওয়া চোখের পলকে মিউজিক ভিডিওতে প্রথম অভিনয় করেন। এ প্রজন্মের সংগীতশিল্পী ইমরানের ‘বলতে বলতে চলতে চলতে’ শিরোনামে গানের মিউজিক ভিডিওর মডেল হয়ে প্রশংসিত হন। অন্যদিকে বেশকিছু চ্যানেলের প্রোগ্রামে উপস্থাপনাও চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। ইতিপূর্বে রবি, ক্যাটস আই, ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড, পোলার আইসক্রিম, প্যারাস্যুট অয়েল, কারমো ম্যাট্রেস, ফ্রেশ পানিসহ বেশ কয়েকটি কোম্পানির বিলবোর্ডে কাজ করছেন তিশা।

সময়ের সাথে সাথে ক্যারিয়ারের পথরেখা সম্প্রসারিত করেছেন তিশা। ছোটপর্দা কিংবা ইউটিউবে হাজারো দর্শকের কাছে নিজেকে প্রমাণ করেছেন। বর্তমানে সবচেয়ে ব্যস্ত সময় যাচ্ছে নাটকে। ২০১৪ সাল থেকে তিশা নাটকে নিয়মিত অভিনয় করা শুরু করেন। রেদওয়ান রনির নির্দেশনায় ‘ইউটার্ন’ নাটকে অভিনয়ের মধ্যদিয়ে টিভি নাটকে তার অভিষেক হয়। নবীন অভিনয়শিল্পী হিসেবে এই টেলিফিল্মের জন্যে মেরিল-প্রথম আলো শ্রেষ্ঠ পুরস্কার জিতে নেন। এরপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি। নাটকের পাশাপাশি ভালো অফার পেলে সিনেমায় কাজ করবেন ছোটপর্দার এই তারকা। তবে সিনেমা নিয়ে তিনি আপাতত মুখিয়ে নেই বলে জানালেন।

সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর যাত্রা অব্যাহত থাকুক। ছোটপর্দা থেকে শুরু করে অন্যান্য সকল মাধ্যমে সমান পরিচিত হয়ে উঠুন এই গুণী নারী, এই কামনাই রইল।

- অনন্যা ডেস্ক