শুক্রবার,২০ Jul ২০১৮
হোম / ফিচার / নারীদের জন্য ‘দোলনচাঁপা’ বাস
০৭/০৮/২০১৮

নারীদের জন্য ‘দোলনচাঁপা’ বাস

-

সম্প্রতি ঢাকা মহাগরীতে নারীদের চলাচলের জন্য ‘দোলনচাঁপা’ নামের নতুন বাস সার্ভিস চালু করেছে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান র‌্যাংগস গ্রুপ। যানবাহনে যৌনহয়রানি যখন ঢাকা শহরের নিত্যচিত্র তখন এ-ধরনের উদ্যোগ অবশ্যই প্রশংসা পাওয়ার যোগ্য। এ-ধরনের বিশেষ সার্ভিসের মাধ্যমে রাজধানীতে প্রকট আকার ধারণ করা এই সমস্যার কতটুকু সমাধান মিলবে তাই এখন দেখার বিষয়।

যানবাহনে যৌনহয়রানি
বাসসহ অন্যান্য পাবলিক ট্রান্সপোর্টগুলোতে নারীর হয়রানির শিকার হওয়ার খবর এখন হরহামেশাই আসে। এই সমস্যার সমাধান তো কোথাও নেই, বরং দিনে দিনে তা যেন বেড়েই চলেছে। অ্যাকশন এইডের প্রকাশিত সাম্প্রতিক একটি প্রতিবেদনে দেখা যায় যানবাহনে চলাচলের সময় ৮৪ শতাংশ নারীই কোনো না কোনোভাবে যৌন হয়রানির শিকার হন। পুরুষ যাত্রীদের পাশাপাশি পরিবহনের কর্মীরাও এই গুরুতর অপরাধ করে থাকেন। এই প্রতিবেদনে আরও বলা হয় যে, যানবাহনে চলাচলকারী অধিকাংশ নারীই প্রতিনিয়ত ভীতিকর পরিস্থিতির মুখোমুখি হন এবং এ নিয়ে বাড়তি চিন্তা বা ভয় তাদের মধ্যে সবসময় থেকেই যায়। অন্যদিকে ব্র্যাকের জেন্ডার স্টাডিস অ্যান্ড ডাইভারসিটি প্রোগ্রামের আরও একটি গবেষণায় উঠে এসেছে আরও মর্মান্তিক কিছু তথ্য। এই গবেষণায় দেখা যায় গণপরিবহনে সবার সামনে যৌনহয়রানির শিকার হলেও অধিকাংশ ক্ষেত্রে নারীদের করার কিছু থাকে না। গবেষণা প্রতিবেদন অনুযায়ী যৌনহয়রানির পর ৮১ শতাংশ নারীই একেবারে চুপ থাকেন এবং ৭৯ শতাংশ নারী ঘটনাস্থল থেকে কিছু না বলে সরে আসেন। সবচেয়ে অবাক করা তথ্য হলো প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ নারী জানিয়েছেন যে ৪১ থেকে ৬০ বছরের পুরুষদের দ্বারাই সবচেয়ে বেশি যৌনহয়রানির শিকার হচ্ছেন এ-দেশের নারীরা।

দোলনচাঁপায় মুক্তি মিলবে কি?
বাসসহ অন্যান্য যানবাহনে যৌনহয়রানি যখন দিনে দিনে বেড়ে চলেছে তখন বাংলাদেশের র‌্যাংগস গ্রুপ এবং ভারতীয় ভলভো আইশার ভেহিকেল লিমিটেডের সহযোগিতায় শুধুমাত্র নারী ও শিশুদের জন্য বিশেষ বাস সার্ভিস চালু হয়েছে। দেশের ইতিহাসে এটাই প্রথম নারীদের জন্য বিশেষায়িত বাস সার্ভিস। গত ২ জুন আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করা এই সার্ভিসটি ইতিমধ্যে ঢাকা শহরসহ সমগ্র দেশবাসীর প্রশংসা কুড়িয়েছে। প্রাথমিকভাবে মিরপুর সার্কেল থেকে আজিমপুর, মিরপুর ১২ থেকে মতিঝিল দুটি রুটি দুইটি বাস চালু করা হচ্ছে। নারীদের নানা সমস্যার কথা বিবেচনা করে বাস সার্ভিসটিতে সিসিটিভি ক্যামেরার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর সঙ্গে রয়েছে প্রাথমিক চিকিৎসাসহ নিরাপদ এবং আরামদায়ক। আগামী কয়েক মাসের ভেতর ধীরে ধীরে আরও বাস চালু করা হবে। এই বাস সার্ভিসে পরবর্তীতে আরো ৬০টি বাস চালু করা হবে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সামগ্রিকভাবে উদ্যোগটি শহরের পরিবহন সেবায় নতুন মাত্রা যোগ করেছে এটা নিয়ে সন্দেহ নেই। তবে এই সার্ভিসের মান আরও বেশি উন্নয়ন সম্ভব। প্রথমত, দোলনচাঁপা বাস সার্ভিসের কথা ওভাবে অনেকেই এখনো জানেন না। এই সার্ভিস নিয়ে প্রচার-প্রচারণাটা তাই বেশ জরুরি। চলাচলের সুনির্দিষ্ট সময়সূচি এবং এখনো পর্যাপ্ত কাউন্টার না বসানোর কারণে কিছুটা হলেও সমস্যায় ভুগছেন বাসটি ব্যবহারে ইচ্ছুক নারীরা।

তবে দোলনচাঁপাকে ঘিরে শহরের নারীদের আগ্রহ ঠিকই চোখে পড়ার মতো। এরই প্রেক্ষিতে জুলাই মাসের ১ তারিখে একই রুটে আরও একটি বাস যুক্ত হওয়ার কার্যক্রম চলছে। তাই উপরোক্ত সমস্যাগুলো নিঃসরণ করলে এই বাস সার্ভিস শহরের অসংখ্য নারীর প্রতিদিনকার জীবনে নির্ভরতা হয়ে দাঁড়াবে- এ নিয়ে সন্দেহ নেই।

- শাহরিয়ার