রবিবার,১৮ নভেম্বর ২০১৮
হোম / ফিচার / সাবিনা-মামুনুলের বিশ্বকাপ ভাবনা
০৬/৩০/২০১৮

সাবিনা-মামুনুলের বিশ্বকাপ ভাবনা

-

চলছে ফিফা বিশ্বকাপ ২০১৮। এবারের আয়োজন রাশিয়াতে। এতে বাংলাদেশ অংশগ্রহণ করতে না পারলেও দেশের অগণিত ফুটবল ভক্ত সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে স্ব-স্ব প্রিয় দলকে। তাহলে আমাদের সেলিব্রিটি কী ভাবছেন? আসুন, জেনে নেওয়া যাক তাদের মুখেই।

সাবিনা খাতুন

(অধিনায়ক, বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ফুটবল দল)

ফুটবল বিশ্বকাপ মানেই তো অন্যরকম একটা উত্তেজনা। আমি তো শুধু ফুটবল খেলোয়াড় না, ভক্তও। ছোটবেলা থেকে আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে আর্জেন্টিনাকেই সাপোর্ট করতাম। তবে আমি সব দেশের খেলাই উপভোগ করি। আর্জেন্টিনার মেসির খেলা তো ভালো লাগেই, সাথে ইনিয়েস্তা, পিকে আর সুয়ারেজের খেলাও আমার খুব পছন্দ। তবে ফুটবল তো দলের খেলা। আর্জেন্টিনা এখন পর্যন্ত ভালো খেলেনি, আমার মনে হয় দল হিসেবে জার্মানি আর ব্রাজিল এই বিশ্বকাপের ফেবারিট। ঈদ আর বিশ্বকাপ একসাথে। বাঙালির ঈদের আনন্দ তাই ছিল দ্বিগুণ। আশা করি সবাই পরিবার ও বন্ধু-বান্ধবের সাথে বিশ্বকাপের খেলাগুলো উপভোগ করবেন।


মামুনুল ইসলাম

(সাবেক অধিনায়ক, বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল)

বিশ্বকাপ হলো ফুটবলের সবচেয়ে বড় মঞ্চ। এই বিশাল ফুটবল যজ্ঞের দর্শক হয় সারাপৃথিবী। আমিও তার ব্যতিক্রম নই। আন্তর্জাতিক ফুটবলে আমি বরাবরই আর্জেন্টিনার ভক্ত। অবশ্যই মেসি আমার সবচেয়ে প্রিয় খেলোয়াড়।

তবে সব ভালো ফুটবলারদের খেলাই আমি দেখি। নেইমার, রোনালদোর খেলাও আমার খুব ভালো লাগে। তবে আমার মতে আর্জেন্টিনা এই বিশ্বকাপে ফেবারিট নয় এবং আমরা ইতিমধ্যে তার প্রমাণ পেয়েছি। বরং জার্মানি, ব্রাজিল, ফ্রান্স, স্পেইনই বেশি শক্তিশালী। এছাড়া এই বিশ্বকাপের ডার্ক হর্স হতে পারে বেলজিয়াম। দল সমর্থনের সময় অবশ্য এত হিসাব-নিকাশ মাথায় থাকে না। পরিবারে প্রায় সবাই ব্রাজিল ভক্ত, শুধু আমি ছাড়া। ২০১০ বিশ্বকাপে যখন ব্রাজিল বাদ পড়ল, তখন পরিবারের সবাইকে অনেক খোঁচা দিয়েছি। কিন্তু পরের দিনই যখন আর্জেন্টিনাও বাদ পড়ে গেল তখন তারা সবাই মিলে আমার মাথায় রঙিন পানি ঢেলে দিয়েছিল। সেই স্মৃতিগুলো এখনও মনে আছে। বিশ্বকাপ ফুটবল মানেই তো এমন মজার মজার ঘটনা আর সবাই মিলে একসাথে খেলা দেখা। তাই আমি সবাই কে বলব, ‘এঞ্জয় দ্য গেম’। শেষ পর্যন্ত খেলা খেলাই। সবাই দায়িত্ব নিয়ে খেলা উপভোগ করবেন যেন খেলা দেখতে গিয়ে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে।


কৃষ্ণা রানী সরকার

(অধিনায়ক, বাংলাদেশ জাতীয় অনূর্ধ্ব-১৮ মহিলা ফুটবল দল)

বিশ্বকাপে আসলে সব দলের খেলাই ভালো লাগে। তবে ফুটবলের জ্ঞান হওয়ার পর থেকে আর্জেন্টিনাকেই সাপোর্ট করি। মজার জিনিস যে আমার পরিবারে শুধু আমি আর আমার বাবা আর্জেন্টিনার সাপোর্টার।

আমার চাচাসহ বাকি সবাই ব্রাজিলের অন্ধ ভক্ত। আমার মনে আছে, ২০১৪ বিশ্বকাপে চাচা আমাকে আর্জেন্টিনা নিয়ে অনেক খোঁচা দিয়েছিলেন। কিন্তু ব্রাজিল যখন সেমি ফাইনালে জার্মানির কাছে ৭ গোল খেয়ে নিজের দেশের বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিলো, তারপর তিনি অনেকদিন বাড়ি থেকে বের হননি। সেবার তো আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে জার্মানিই বিশ্বকাপ জিতল। তবে আমি ফেবারিট তত্ত্বে বিশ্বাসী নই। যে ৩২টা দল বিশ্বকাপ খেলছে তারা ভালো বলেই খেলছে। যে কেউ বিশ্বকাপ শিরোপা ঘরে তুলতে পারে। তবে ফলাফল যা-ই হোক না কেন, আপনারা শান্তিপূর্ণভাবে খেলা উপভোগ করুন।

-আব্দুল্লাহ মাহমুদ আলাউদ্দীন