মঙ্গলবার,১৬ অক্টোবর ২০১৮
হোম / রূপসৌন্দর্য / উৎসবের আগে ত্বকের যত্ন
০৬/১১/২০১৮

উৎসবের আগে ত্বকের যত্ন

-

রমজান এমন একটি সময় যখন আমাদের দৈনন্দিন রুটিনে ব্যাপক পরিবর্তন আসে। এই মাসে আমাদের অনেকেরই পর্যাপ্ত ঘুম হয় না, সাথে পানি কম খাওয়া হয়। ইফতারের সময় ও খাওয়ার পরে তৈলাক্ত ভাজা-পোড়া খাবার। ঘুমের সময়, খাবারের অভ্যাসে পরিবর্তনে আমাদের ত্বকের উপর বাজে প্রভাব পড়তে পারে। তাই রমজান মাস থেকেই ত্বকের যত্ন নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ।

বেশি করে খেজুর খান
রোজার মাসে খেজুর স্টেপল ফুডের মতোই হয়ে যায়, যেকোনো জায়গায় ইফতারে খেজুর থাকবেই। খেজুরে আয়রন, ক্যালসিয়াম, কপার, ম্যাগনেসিয়াম, ফলিক এসিড, প্রোটিন, ভিটামিন ও ফাইবার থাকায় ত্বক ও চুলের জন্য খুব উপকারী। খেজুর ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা বাড়াতে সাহায্য করে, ক্ষয়ে যাওয়া কোষগুলো ঠিক করে আর ত্বকের বয়স কমিয়ে দেয়। তাই ইফতারে ছাড়াও অন্য সময় বেশি করে খেজুর খান। তবে চিনিতে সমস্যা থাকলে পরিমাণমতো খাওয়াই ভালো।

ফলমূল
ইফতারের টেবিলে সবখানেই কয়েক পদের ফল দেখা যায়। অনেকে ফলের জুস দিয়ে রোজা ভাঙতে পছন্দ করেন। প্রয়োজনীয় পুষ্টি ছাড়াও এতে থাকে প্রচুর পরিমাণে পানি, যা ত্বকের ডিহাইড্রেশন কমায়, সাথে ত্বকের বয়সও কমিয়ে দেয়।

ময়েশ্চারাইজ করুন
রোজার দিন শেষে ত্বক ভালো করে ময়েশ্চারাইজ করতে হবে। যেহেতু দিনের অর্ধেকের বেশি সময় পানি না খেয়ে থাকতে হয়, ত্বক খুবই শুষ্ক হয়ে যায়। তাই দিনে কিছুক্ষণ পরপরই ত্বককে নরম করতে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

বেশি করে পানি পান করুন
রোজা শেষে আমাদের উচিত অন্তত ৮ থেকে ৯ গ্লাস পানি পান করা। এতে শরীরেরর সব বর্জ্য বের হয়ে যায় ও ত্বক ফুরফুরে দেখায়। পানি ছাড়াও লাচ্ছি, জুস এগুলো খাওয়া যেতে পারে। এতে শরীরের আর্দ্রতা বজায় থাকবে আর আপনাকে ফ্রেশও দেখাবে।

কফি ও সোডা খাওয়া কমান
আমাদের শরীরে সেলুলাইট হওয়ার অন্যতম কারণ হলো খাবারের সাথে অতিরিক্ত পরিমাণে সোডিয়াম খাওয়া। বেশি ক্যাফেইন বা কোলা ড্রিঙ্কস কোনোটিই শরীরের জন্য ভালো না, বিশেষত এই মাসে। এর পরিবর্তে লেবুর শরবত, ফ্রুট জুস, গ্রীন টি এসব রাখুন খাদ্যতালিকায়। শরীর ও ত্বক দুটোই ভালো থাকবে।

এক্সফলিয়েট ও সুরক্ষা
রাতে বিছানায় যাওয়ার আগে মুখ ভালো করে ধুয়ে এক্সফলিয়েট করে নিন। এতে ত্বকের মৃত কোষগুলো উঠে যাবে। রাতে মুখ পরিষ্কার করে টোনার লাগানোর পরে আন্ডার-আই ক্রিম লাগিয়ে নিতে হবে। এতে পরের দিন চোখের নিচে কালি কম পড়বে ঘুম কম হওয়া সত্ত্বেও। দিনের বেলা বাসা থেকে বের হওয়ার আগে সানব্লক বা সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে ভুলবেন না।

ফেসপ্যাক
রোজার সময় শরীরে ও ত্বকের উপর অনেক ধকল যাওয়ায় অতিরিক্ত কিছু যত্ন নিতেই হয়। একটু সময় বের করে মুলতানি মাটি, মধু আর দই দিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করে লাগান। আর যদি একান্তই না পারেন তাহলে বাজারে অনেক রেডি ফেসপ্যাক পাওয়া যায়, এগুলো কিনে ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া সুযোগ সুবিধামত পার্লারে যেয়ে একটু হার্বাল ফেশিয়ালও করাতে পারেন।

- নুসরাত ইসলাম