মঙ্গলবার,২২ মে ২০১৮
হোম / সম্পাদকীয় / জ্বলেপুড়ে খাঁটি হয়ে ওঠার শিক্ষা
০৫/১৭/২০১৮

জ্বলেপুড়ে খাঁটি হয়ে ওঠার শিক্ষা

-

রমজান মানে কী? আমরা কি এর প্রকৃত অর্থ কখনো ভেবে দেখেছি? হিজরি সনের নবম মাস রমজান বা রমাদান, আরবিতে যার অর্থ ‘জ্বলন’। কিন্তু কীসের জ্বলন? কেন জ্বলন?

বাংলায় একটি কথা প্রচলিত আছে, দহনে খাঁটি হয় স্বর্ণ। অর্থাৎ সোনার ভেতরে যে খাঁদ আছে, সেটা আগুনে পোড়ালে দূর হয়ে যায়। আমাদের জীবনটাও স্বর্ণের মতো। কিন্তু জীবনটা এমনই যে, এটা যাপনের ভেতরে কিছু খাঁদের জন্ম হবেই। সেই খাঁদকে প্রকাশ করা হয় বিভিন্ন নামে। মানুষ
মাত্রই জেনে বা না-জেনে ভুল করে, পাপ করে। রমজান কেবলা হয় সেই পাপ জ্বলনের মাস। অর্থাৎ এই মাসে সব অন্যায় বা ভুল বা পাপ পুড়ে যায়, আমরা যতটা সম্ভব খাঁটি হয়ে উঠি। কিন্তু আমরা কি সত্যিই খাঁটি হয়ে ওঠার পথে চলি? আমরা কি সত্যিই সংযমী হতে পারি এই মাসে? আমরা কি প্রকৃতই সহিষ্ণুতার পরিচয় দিতে পারি? দ্রব্যমূল্যের দাম কেন বেড়ে যায় এই মাসে? লোভের রাশে কেন টান পড়েনা?

রমজানে ক্ষুধা ও পিপাসায় রোজাদারের পেটে আগুন জ্বলে। কিন্তু ত্যাগের মাস রমজান বাহ্যত হয়ে ওঠে যেন ভোগের মাস। অনেকে সেহেরি ও ইফতারিতে এতটাই ভোজন প্রিয় হয়ে ওঠে যে, কমার পরিবর্তে তাদের ওজন আরো বেড়ে যায়। আবার কোনো কোনো পুষ্টিবিশেষজ্ঞ মনে করেন, রমজানে আমাদের যে খাদ্যাভ্যাস লক্ষ্য করা যায়-তা পুরোপুরি স্বাস্থ্যসম্মত নয়। সেহেরি ও ইফতারের অধিকাংশ খাবারই দেখা যায় চর্বিসমৃদ্ধ এবং তেলে ভাজা। খেয়াল রাখতে হবে সেহেরির খাবারটা যেন সহজপাচ্য হয়। ইফতার শুরু করা যেতে পারে শরবত দিয়ে। তবে কৃত্রিম রঙের শরবত অবশ্যই নয়। ভুলে গেলে চলবেনা-কৃত্রিমরঙে থাকে প্রাণঘাতী ক্যান্সার সৃষ্টিকারী উপাদান। যেকোনো একটি ফল খাওয়া উচিত ইফতারে। ফলে থাকে প্রচুর ভিটামিন ও খনিজ। বুট, ছোলা ও মুড়ি খেতে পারেন এ-সময়ে। তবে দই, চিড়া ও কলা খেলে আরো ভালো। খাবারগুলো পুরনো তেলে ভাজা হলে ক্ষতির পরিমাণটা বেড়ে যায়। কারণ, তেল বারবার গরম করলে ক্ষতিকর পলিনিউক্লিয়ারহাইড্রোকার্বন তৈরি হয়, যার মধ্যে থাকে বেনজোপাইরিন। এটাও ক্যান্সার সৃষ্টি করে। যদি আপনি এসব ব্যাপারে সচেতন না থাকেন, তবে এবার থেকেই শুরু করুন এসব স্বাস্থ্যসম্মত অভ্যাস।

সংযমময় রমজান মাসটি হোক আমাদের সবচেয়ে বড়শিক্ষার মাস। কী ভাবে পরিমিত বোধ জাগিয়ে তুলতে হয়, তা শেখার মাস। কী ভাবে সীমালঙ্ঘন করতে হয়-তা উপলব্ধি করার মাস। মনে রাখতে হবে ‘সংযম’ শব্দের অর্থ ব্যাপক। আমাদের ধর্ম প্রতিটি ক্ষেত্রেই সীমালঙ্ঘন না করার কথা বলেছে, পরিমিত বোধের কথা বলেছে। এগুলো সংযমেরই অংশ। রমজানের ‘অনন্যা’ সংখ্যাটি আমরা সাজিয়েছি স্বাস্থ্য ও পরিতৃপ্তির কথা মাথায় রেখেই। কেবল রমজান মাসে নয়, সংযম-শিক্ষাছড়িয়ে পড়ুক বছরজুড়েই। সবাই সুস্থ ও সুন্দর থাকুন। সবার মঙ্গল হোক।

- তাসমিমা হোসেন