বুধবার,১৩ ডিসেম্বর ২০১৭
হোম / ফ্যাশন / অফিস ফ্যাশনে হাইহিল!
১০/২২/২০১৭

অফিস ফ্যাশনে হাইহিল!

-

পুরো আউটলুকে ভিন্নতা আনতে একজোড়া হাইহিল বেশ কাজের। পোশাকের সঙ্গে মানানসই হাইহিল বা সুন্দর এক জোড়া পাদুকা নিজেকে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে সহায়ক। তবে হাইহিল পরে সারাদিন পার করা দুষ্করই বটে, বিশেষ করে অফিসে। তাই বলে যে একেবারেই হিল পরা যাবে না, তা তো নয়। তাছাড়া অনেকটা সময় উঁচু জুতা পরে থাকলে শারীরিক নানান অসুবিধা দেখা দিতে পারে। তবে কিছু ক্ষেত্রে আবার না পরলেই নয়। তাই নিজের সুবিধামতো স্যান্ডেল বা হিলের উচ্চতা বেছে নেওয়া যেতে পারে।

ছোট হিল
হিল মানেই যে ছয় ইঞ্চি উঁচু বা পেন্সিল হিল বেছে নিতে হবে এমন কোনো কথা নেই। নিজের সুবিধামতো হিলের আকার বেছে নেওয়া যেতে পারে। দীর্ঘ সময় পরে থাকার ক্ষেত্রে অল্প হিলের স্যান্ডেলও সমানভাবে মানানসই হবে। অফিশিয়াল পোশাকের সঙ্গে তাই চাইলেই নিজের স্বাচ্ছন্দ্যের সঙ্গে স্যান্ডেলের হিলের উচ্চতা মানিয়ে পরা যেতে পারে।

ওয়েজেস
পেন্সিল হিল পরলে পায়ের গোড়ালিতে চাপ পড়ে বেশি। তাই এর বদলে বেছে নিন ওয়েজেস বা সমান হিলের স্যান্ডেল। এই ধরনের স্যান্ডেলের পিছনের ও সামনের অংশের উচ্চতার মধ্যে সামঞ্জস্যতা থাকে বিধায় বেশি সমস্যা হয় না। সিগারেট প্যান্ট, পালাজ্জো বা জিন্স যে কোনো ধরনের পোশাকের সঙ্গেই এই ধরনের স্যান্ডেলগুলো মানিয়ে যায়। তাই অফিস, পার্টি বা ঘোরাঘুরি যে কোনো উপলক্ষের জন্যই ওয়েজেস বেশ উপযোগী।

ফ্ল্যাটস
যে কোনো পোশাকের সঙ্গেই ফ্ল্যাট স্যান্ডেল বা জুতা বেশ মানানসই। তাই সবসময় হিল পরে থাকতে হবে এমন যুক্তিকে বিদায় জানাতেই পারেন। যে কোনো ফরমাল পোশাকের সঙ্গে পরা যেতে পারে মানানসই ব্যালেরিনা শু বা ফ্ল্যাট স্যান্ডেল।

ব্লক হিল
বেশ পুরাতন ফ্যাশন হলেও ফ্যাশনে এর জুড়ি নেই। যাদের হিল পরে হাঁটতে সমস্যা হয় তাদের জন্য আদর্শ ব্লক হিল। ওয়েজেসের মতো ব্লক হিলের ক্ষেত্রেও সামনে ও পিছনে উচ্চতার সামঞ্জস্যতা থাকে বিধায় সমস্যা কম হয়।

স্নিকার
স্নিকার বা শু এই ধরনের পাদুকাগুলোর চল কখনোই পুরানো হয় না। তাই সপ্তাহে এক বা দু’টি দিন পা যুগলকে ছুটি দিন হাইহিল থেকে। সেদিনগুলোতে বেছে নিন আরামদায়ক স্নিকার, কনভার্স বা অন্য কোনো আরামদায়ক জুতা।

হিল জুতার কারণে মেরুদন্ডের স্বাভাবিক গড়নে পরিবর্তন আসে, বিশেষ করে কোমরের ঠিক উপরে মেরুদন্ডের বাঁকানো অংশটি আরও সামনের দিকে বেঁকে যেতে থাকে। ফলে পিঠ ও ঘাড়ের হাড়ের স্বাভাবিক গড়নও পরিবর্তিত হয়। খালি চোখে এই পরিবর্তনগুলো চোখে না পড়লেও ভবিষ্যতে এটি বেশ ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে। তাই হিল ভালো লাগলেও কখনোই তা প্রথম পছন্দ হওয়া উচিত নয়। কারণ প্রতিদিন যদি হিল পরা হয় তা থেকে পায়ের গোড়ালি, পিঠ ও ঘাড় ব্যথা হওয়ার সমস্যা বাড়তে পারে। তাই নিত্য ব্যবহারের জন্য বেছে নিন ফ্ল্যাট বা অল্প উঁচু ও আরামদায়ক স্যান্ডেল, আর হিলগুলো তুলে রাখুন বিশেষ অনুষ্ঠানর জন্য।

- সামিরা আহসান