মঙ্গলবার,২০ নভেম্বর ২০১৮
হোম / সম্পাদকীয় / কালোকে ঘৃণ্য মনে করাটাই কুৎসিত
১০/১৭/২০১৭

কালোকে ঘৃণ্য মনে করাটাই কুৎসিত

-

কালো মানেই কি খারাপ? কালো কি শয়তান-দৈত্য-দানবের প্রতীক? কালোদিবস, কালোপতাকা, কালোরাত, কালোজগৎ, কালোটাকা, অন্তরকালা ইত্যাদি আমরা হরহামেশাই ব্যবহার করি। যেন ‘কালো’র ভেতরে কোনো আলো নেই, শুধুই অন্ধকার। সমাজের এই আপত্তিকর দৃষ্টিভঙ্গির কারণে একটি কালো মেয়েকে হীনম্মন্যতায় ভুগতে হয় সারা জীবন। আফ্রিকার কালোদের দাস বানিয়ে রাখার কুৎসিত-যুগ এই পৃথিবী পার করেছে অনেক বছর আগেই। কিন্তু বর্ণবাদের সাদা ভূত এখনো আমাদের ঘাড়ে চেপে বসে আছে।

আমরা দেখেছি কয়েক শতাব্দী ধরে সবখানে সাদা চামড়ার মানুষের জয়জয়কার। মুঘল, পাঠান কিংবা ব্রিটিশদের কাছে স্থানীয় রাজা-মহারাজা-জমিদারেরা পর্যন্ত জো-হুজুর বলে সবসময় মাথা নত করে থাকতেন। এই যে সম্ভ্রম তৈরি হয়েছিল সাদা চামড়ার প্রতি-এর থেকেই কি পাল্টে গেল সৌন্দর্যের সংজ্ঞা? এই কারণেই কি সাদা চামড়া মানেই ‘সুপিরিয়র’? অথচ মধ্যযুগীয় বাংলা সাহিত্যে আমরা দেখতে পাই ‘কালো’র জয়জয়কার।

শ্রীকৃষ্ণকীর্তনের নায়ক কৃষ্ণ ছিলেন কুচকুচে কালো। তখনো যদি সাদা প্রভুদের রাজত্ব থাকত বড়ু চণ্ডীদাস কি ‘সাদা’ করে দিতেন কৃষ্ণের গায়ের রং?
ফর্সা রঙের প্রতি আমাদের পক্ষপাতিত্ব কতো ভয়ঙ্কর-তার সবচেয়ে বড় উদাহরণ হলো গায়ের রং ফর্সা করার ক্রিমের বিপুল জনপ্রিয়তা। ইউরো মনিটর ইন্টারন্যাশনালের এক বাজার সমীক্ষায় দেখা গেছে, বর্তমানে এই উপমহাদেশে রং ফর্সাকারী ক্রিমের বাজার প্রায় ১০০ কোটি মার্কিন ডলারের ওপরে। কেবল মেয়েদের নয়, ছেলেদের জন্যও বের করা হয়েছে রং ফর্সা করার ক্রিম, যার বিজ্ঞাপনে অংশ নেন বলিউডের শীর্ষ তারকা।

এখন সঙ্গত প্রশ্ন হলো, সত্যিই কি সাদা চমড়ার মানুষেরা উন্নত প্রজাতির? জেনেটিক বিজ্ঞান বলছে, আসলে মানুষের মধ্যে শ্রেষ্ঠ রেস বা গোত্র বা বর্ণ বলে কিছু নেই। পৃথিবীর যেকোনো দুজন মানুষের মধ্যে জেনেটিক বা বংশগতির পার্থক্য মাত্র শতকরা এক ভাগেরও কম। এই কথাটারই প্রতিধ্বনি শুনি কবি সত্যেন্দ্রনাথ দত্তের কবিতায়-‘কালো আর ধলো বাহিরে কেবল, ভিতরে সবারই সমান রাঙা।’ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কৃষ্ণকলির ভেতরে যে কালো হরিণ চোখের অপার সৌন্দর্য দেখেছেন, আমরা এর তারিফ করি বটে, কিন্তু অন্তরে লালন করি না। মজার ব্যাপার হলো, গায়ের রং কালো হওয়ার নেপথ্যে ‘মেলানিন’ নামের যে রঞ্জক পদার্থ কাজ করে, তা ত্বকের ক্যান্সার প্রতিরোধক। মেলানিন সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মিকে আটকে দেয়। অর্থাৎ ফর্সা ত্বক প্রকৃতপক্ষে স্বাস্থ্যকর নয়।

সুতরাং কালো মানে কুৎসিত নয়, কালোকে ঘৃণ্য মনে করাটাই কুৎসিত। আসুন, কালোর চোখ দিয়ে দেখি জগতের নতুন আলো।

- তাসমিমা হোসেন