রবিবার,২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭
হোম / সম্পাদকীয় / খাদ্যতালিকায় রাখুন ফলফলারি ও শাকসব্জি
০৪/০১/২০১৬

খাদ্যতালিকায় রাখুন ফলফলারি ও শাকসব্জি

-

বেশকিছু দিন ধরে কোনো কাজেই মন বসছে না? কিছুই করতে ভালো লাগছে না? প্রতিদিনের কাজের চাপও কম নয় নিশ্চয়ই। মনে কি হচ্ছে সেই চাপে মনের ভেতর সৃষ্টি হচ্ছে গভীর অবসাদ? কিন্তু একবারও কি আপনি নজর দিয়েছেন নিজের নিত্যদিনের খাদ্যতালিকায়?
অবসাদ অনেক কারণেই সৃষ্টি হতে পারে। তার একটি বড় কারণ - আপনি কী ধরনের খাবার খাচ্ছেন। স্পেনের লা পালমা দ্য গ্রাঁ কানারিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক জানাচ্ছেন, বেশি করে ফল এবং শাকসবজি খেলে অবসাদ উধাও হয়ে যাবে ভোজবাজির মতো। তাদের গবেষণায় উঠে এসেছে, খাদ্যে পুষ্টি কম হলেই বাড়ে মনের অবসাদ। গবেষকদের দাবি, বেশি করে শস্যদানা, ফল, শাক-সব্জি, বাদাম খেলে কমবে অবসাদ। তাই নিজেকে অবসাদমুক্ত করতে চাইলে বেছে নিন ঋতুভিত্তিক যেকোনো ফল-ফলারি ও শাকসব্জি। মিনারেল, ভিটামিন এবং উপকারী ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিডযুক্ত শস্যদানা, ফল, শাক-সব্জির অভাব নেই আমাদের দেশে। বিশেষ করে গ্রীষ্ম ঋতুতে তো ফল-ফলারির উৎসব শুরু হয়ে যায়।
বেশি বেশি ফল খেলেই যদি অপুষ্টি দূর হয়, চিত্ত হয় উৎফুল্ল- তবে বিভিন্ন খাবারের রেসিপির দরকার কী? এমন প্রশ্নের সরল উত্তর হলো, খাবারের মধ্যে বৈচিত্র্যেরও দরকার অনেক বেশি। মানুষের জিহ্বার কোষে রয়েছে শত সহস্র স্বাদ-গন্ধের স্নায়ু । মনের অবসাদ দূর করতে সেসব স্নায়ুরও রয়েছে পরোক্ষ ভূমিকা। তৃপ্তিকর খাবার তাই বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। আর তৃপ্তির সঙ্গে যদি পুষ্টির মোলাকাত ঘটানো যায়, তাহলে তো- যাকে বলে রাজঘোটক। তৃপ্তি ও পুষ্টির মেলবন্ধন ঘটানোই হলো ভালো রেসিপির বৈশিষ্ট্য।
বাঙালির খাদ্যসম্ভারে যে কত বৈচিত্র্য লুকিয়ে আছে, তার তালিকা হঠাৎ দেখলে বিস্ময়ই জাগে।
অনন্যার এই বাংলা নববর্ষ রেসিপি সংখ্যায় আমরা চেষ্টা করেছি পুষ্টি ও তৃপ্তির সমন্বয়ে সেরা রেপিসির পসরা সাজাতে।
আপনাদের ভালো লাগাতেই আমাদের তৃপ্তি।
শুভ নববর্ষ।

তাসমিমা হোসেন