শনিবার,১৮ নভেম্বর ২০১৭
হোম / অন্দর-বাগান / উৎসবের অন্দরসাজ
০৬/২১/২০১৭

উৎসবের অন্দরসাজ

-

ঈদ প্রতিটি বাঙালির জন্য একটি বিশেষ আনন্দের উৎসব। ধর্মের চেয়ে বেশি এর সঙ্গে বাঙালির যেন ঐতিহ্যগত সম্পর্ক। বিশেষ করে দীর্ঘ একমাস রোজা রাখার পর উৎসবটি নিয়ে উচ্ছ্বাসিত হওয়াটাই স্বাভাবিক। তাই ঈদের পরিকল্পনায় উৎসবের ছোঁয়া লাগে পোশাকআশাক থেকে শুরু করে বাড়ির অন্দরসজ্জাতেও। ঈদের আগে অন্দরমহলকে মনের মতো না সাজালে যেন ঈদের আমেজ পরিপূর্ণ হয় না। আর এ জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে ঈদের বেশ কয়েকদিন আগে থেকেই।

গাছ ও তাজা ফুল
এবারের ঈদ যেহেতু গরমকালেই পরবে, তাই আপনাকে চেষ্টা করতে হবে বাড়ি বাড়ির পরিবেশ যতটুকু সম্ভব স্নিগ্ধ করে সাজিয়ে তোলার। পুরো বাড়িজুড়ে যেখানেই জায়গা পান তাজা ফুল আর গাছ রাখার চেষ্টা করুন। ফুলের রঙ অবশ্যই মিলিয়ে নিন বাসার আশেপাশের আসবাবের সঙ্গে। ফুলগুলো রাখুন ক্রিস্টালের ফুলদানিতে, ফুলদানিটি রাখুন একটি সুদৃশ্য সিরামিকস এর থালার ওপর। ড্রাইফুল ব্যবহার করলে এর শুষ্কভাব কাটাতে ব্যবহার করুন ফার্নের পাতা। এছাড়া লবি ফুল দিয়ে সাজালে বাড়িতে ঢোকার সঙ্গে সঙ্গেই সতেজ ও ফুরফুরে হয়ে উঠবে অতিথির মন। ঘরে প্রবেশের আগে অতিথিদের হাতে ধরিয়ে দিতে পারেন এক তোড়া ফুল। দরজার বাইরে, বারান্দায় গাছের টব রেখে দিতে পারেন।

আলোকসজ্জা
পৃথিবীর সবখানেই রমজানকে ফুটিয়ে তুলতে আলোর ব্যবহার করা হয়। তাই এই মাসে ও ঈদের দিন ঘরে এক্সট্রা আলো আনার চেষ্টা করুন। বিভিন্ন ধরনের ল্যাম্প কিনে নিতে পারেন। রাতে টেবিলের সেন্টারপিস হিসেবে মৃদু আলোর ল্যাম্প বেছে নিতে পারেন। এছাড়া বাসার বিভিন্ন আসবাবপত্রের উপর হালকা আলোর মোমবাতি বা কৃত্রিম আলো রাখতে পারেন।

দেশি আমেজ
ঈদের দিন দেশিয় আমেজ আনতে ঘরের এক কর্ণারে মাটির চাড়িতে পানি দিয়ে রেখে দিন কিছু ফুল এবং ফুলের পাপড়ির সঙ্গে মোমবাতি। বাঁশ বা বেতের তৈরি ফার্নিচারের সঙ্গে খাঁটি কাপড়ের পর্দা ও কুশন কভার ব্যবহার করুন। ব্লক, বাটিক অথবা কাতান পাড় লাগিয়ে তৈরি করে নিতে পারেন আপনার মনমতো পর্দা। মেঝেতে বিছিয়ে দিন শতরঞ্জি অথবা শীতল পাটি। ঘরটিতে ভিন্নতার ছোঁয়া আনতে দেয়ালে তামা, মাটি ও পিতলের মুখোশ সাজিয়ে দিন।

ডোর হ্যাঙ্গার
ঈদের দিনের অতিথিদের উইশ করতে অথবা স্বাগত জানাতে নিজের হাতে একটি ডোর হ্যাঙ্গার বানিয়ে নিতে পারেন। এটি বানানোর জন্য খুব বেশি খাটতে হবে না। কয়েকটি ফিতা ও বিভিন্ন রঙ্গের বর্ণ দিয়ে একটি ডোর হ্যাঙ্গার বানিয়ে নিতে পারেন। ঈদের আগের রাতে বাড়িতে ঢোকার দরজার বাইরে ঝুলিয়ে দিন হ্যাঙ্গারটি।

মনে রাখুন
* অগোছালো অবস্থায় থাকা বুক সেলফ, শো-পিস স্ট্যান্ড, খাবারের ডিশ রাখার শোকেস যত্ন নিয়ে গুছিয়ে ফেলুন।
* নতুন পর্দা, কুশন কাভার, চাদর বা ম্যাট্রেস না কিনলে পুরনোগুলোই ওয়াশে দিন ঈদের আগে।
* সময় নিয়ে ঘরের উপরের কর্নারের ঝুল ঝেড়ে ফেলুন।
* অতিথি বেশি আসার সম্ভাবনা থাকলে অবশ্যই দরজার কাছে একটি শু-র‌্যাক রাখুন।
* ঘরের গাছগুলো পানি দিয়ে স্প্রে করে পরিষ্কার করুন ঈদের আগের রাতে।
* বেসিনের পাশে ও কমন বাথরুমে পরিষ্কার তোয়ালে রাখুন এই দিনটির জন্য।
* নতুন অথবা বাসার সবচেয়ে ভালো ডিনার ও কাপ সেট বের করুন ঈদের দিনের জন্য।

- নুসরাত ইসলাম