বুধবার,২২ নভেম্বর ২০১৭
হোম / খাবার-দাবার / গরমে শীতল পানীয়
০৫/১৫/২০১৭

গরমে শীতল পানীয়

-

গ্রীষ্মকাল তো চলেই এল। রোদের তেজ বাড়ছে সেই সঙ্গে দেখা দিচ্ছে ক্লান্তিআর তৃষ্ণা। সেই তৃষ্ণা মেটাতে একগ্লাস ঠান্ডা পানীয়-এর কোনো তুলনা নেই। বাজারের নানাধরনের প্যাকেটজাত পানীয় পান না করে ঘরেই বানিয়ে নিন নানারকমের ড্রিঙ্কস। রেসিপি দিয়েছে সাবেরা আহমেদ সারাহ।

ফ্রুট পাঞ্চ

উপকরণ
কমলার রস-২ ক্যান (ফ্রোজেন)
লেমোনেড- ২ ক্যান (ফ্রোজেন, ঘন)
আনারস জুস- ১ ক্যান
লাইম সোডা- ১ লিটার
স্ট্রবেরি- ২ কাপ
চিনি- ৩ কাপ
পানি- ৩ কাপ

প্রণালি
অরেঞ্জ জুস, লেমোনেড ও পাইন্যাপেল জুস একসঙ্গে ভালো করে নেড়ে মিশিয়ে নিন।

এবারে পানি ও চিনি একটা সসপ্যানে একসঙ্গে ফুটিয়ে নিন। ৫ মিনিটের মধ্যে চিনি ভালো করে গলে মিশে যাবে। ঠান্ডা করে এই সিরাপ ফ্রুট জুসের সঙ্গে মিশিয়ে নিন। ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে নিন।

পরিবেশন করার সময় একটা পাঞ্চ বাটিতে ঠান্ডা ফ্রুট জুস ঢেলে সোডা মিশিয়ে নিন। ওপরে স্ট্রবেরি ফ্লোট করে পরিবেশন করুন।

স্ট্রবেরি লস্যি

উপকরণ
টক দই- ২ কাপ
স্ট্রবেরি- ১ কাপ
ফ্রেশ ক্রিম- আধা কাপ
এলাচ গুঁড়ো- ১ চিমটি
চিনি- ৪ টেবিল চামচ
ঠান্ডা পানি- আধা কাপ
পেস্তা- ২ টেবিল চামচ
বরফ প্রয়োজনমতো

প্রণালি
টক দই ভালো করে ফেটিয়ে নিন। স্ট্রবেরি আর পেস্তা আলাদা আলাদা করে কুচিয়ে রাখুন।

এবার মিক্সিতে একে একে বরফ কুচি, ফেটানো টক দই, স্ট্রবেরি কুচি, এলাচ গুঁড়ো, চিনি আর ফ্রেশ ক্রিম দিয়ে মিশিয়ে নিন।

দরকারে সামান্য পানি দিতে পারেন।

এবার গ্লাসে স্ট্রবেরি লস্যি ঢেলে উপর থেকে পেস্তা কুচি ছড়িয়ে ঠান্ডা ঠান্ডা পরিবেশন করুন।

লেবু পানি

উপকরণ
পাতিলেবু- ৪টে
পানি- ১ লিটার
চিনি- ১ কাপ
গোলমরিচ- ১ টেবিল চামচ
বিটলবণ- ১ চা-চামচ
আইস কিউব

প্রণালি
একটা পাত্রে লেবুগুলি কেটে রস বের করে নিন।

আলাদা একটা পাত্রে পানি দিয়ে আঁচে বসান। পানি গরম হয়ে এলে লেবুর রসটা ভালোভাবে মেশান।

এর মধ্যে চিনিটা ঢেলে দিন। যতক্ষণ না চিনিটা গলে যাচ্ছে ততক্ষণ নাড়তে থাকুন।

বিটনুন ও গোলমরিচ দিয়ে ভালোভাবে নাড়তে থাকুন।

নামিয়ে ঠান্ডা করে পাত্রে ঢেলে পরিবেশন করুন।

বেলের শরবত

উপকরণ
বেল- ১টা
দুধ বা দই- আধা কাপ
পানি- ৪ কাপ
চিনি পরিমাণমতো

প্রণালি
যেদিন শরবত বানাবেন তার আগের দিন রাতে অথবা অন্তত ১২ ঘণ্টা বেল ভিজিয়ে রাখুন।

পানি থেকে তুলে বেলের আঠা ও বিচি ফেলে ভালো করে চটকে ছেঁকে নিন।

দইয়ের সঙ্গে চিনি ও পানি মিশিয়ে ভালো করে ঘেঁটে মিশিয়ে নিন।

এবার বেলের মধ্যে দই, পানি, চিনির মিশ্রণ ঢেলে ভালো করে মিশিয়ে রফকুচি দিয়ে পরিবেশন করুন।

কাঁচা আমের বাহারি শরবত

কাঁচা আম- ৩টি (মাঝারি সাইজের)
চিনি- ১ কাপ
ভাজা জিরা গুঁড়ো- ১ টেবিল চামচ
পানি- ২ কাপ
পুদিনা পাতা- ১ টেবিল চামচ
গোলমরিচ গুঁড়ো স্বাদমতো
গুঁড়ো বরফ

প্রণালি
বড়ো ডেকচিতে পানি দিয়ে আম সিদ্ধ করে নিন। নামিয়ে ঠান্ডা করে খোসা ছাড়িয়ে আমের শাঁস চটকে নিন।

পানি দিয়ে মিশিয়ে মিহি পেস্ট তৈরি করুন। এবার ডেকচিতে আমের পেস্ট দিয়ে চিনি দিয়ে ফোটাতে থাকুন।

যতক্ষণ না চিনি গলে যাচ্ছে ফোটাতে থাকবেন। আগুন থেকে নামিয়ে ভাজা জিরে গুঁড়ো, নুন ও গোলমরিচ মেশান। মিশ্রণ পুরোপুরি ঠান্ডা করে নিন।

এবারে একটা লম্বা গ্লাসে ১-২ টেবিল চামচ আমের মিশ্রণ দিয়ে বরফ ঠান্ডা পানি দিয়ে গ্লাস ৩/৪ ভর্তি করুন। ওপরে পুদিনা পাতা ও বরফ গুঁড়ো দিয়ে পরিবেশন করুন।