মঙ্গলবার,২২ অগাস্ট ২০১৭
হোম / খাবার-দাবার / স্বাদের সামুদ্রিক মাছ
০৩/১৪/২০১৭

স্বাদের সামুদ্রিক মাছ

-

সি-ফুড বা সমুদ্রের মাছে যেমন রয়েছে নানারকম ফুড ভ্যালু, তেমনি খেতেও মজাদার। চিংড়ি, রূপচাঁদা, কোরাল কিংবা ইদানীংকালের প্রিয় ডিশ কালামারি বা স্কুইড -- সি-ফুড ডিশের স্বাদ একেবারে ইয়াম্মি। আর কাঁটা কম থাকায় সামুদ্রিক মাছ বাচ্চারাও পছন্দ করে। শায়লা নাইম শিলু পাঠিয়েছেন সামুদ্রিক মাছের বেশ কিছু রেসিপি।

ফ্রাইড কালামারি বা স্কুইড

উপকরণ
কালামারি বা স্কুইড রিংস- ২০০ গ্রাম
গোলমরিচ- সিকি চা-চামচ
ডিম- ১টি
সুজি- ২০০ গ্রাম
মরিচগুঁড়া- আধা চা-চামচ
লেবুর রস- ১ টেবিল চামচ
সয়াবিন তেল- ৩০০ গ্রাম
লবণ- আধা চা-চামচ

প্রণালি

প্রথমে সুজি, লবণ, গোলমরিচ, মরিচগুঁড়া ভালো করে একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। স্কুইড রিংসের সঙ্গে লেবুর রস ও ডিম মেশান। তারপর বিটারের সাহায্যে সবকিছু বিট করে নিয়ে ব্যাটার তৈরি করুন। এবার গরম তেলে একে একে স্কুইড রিং দিয়ে মচমচে করে ভেজে তুলুন। সস আর স্যালাডের সাথে পরিবেশন করুন এই দারুন অ্যাপেটাইজারটি।

লইট্টা ফ্রাই

উপকরণ
লইট্টা মাছ- ১ কেজি
আদাবাটা- আধা চামচ
রসুনবাটা- আধা চা-চামচ
স্বাদলবণ- সিকি চা-চামচ
গোলমরিচের গুঁড়া- আধা চা-চামচ
সয়াসস- আধা চা-চামচ
লেবুর রস- ১ চা-চামচ
ডিম- ১টা
ব্রেড ক্রাম্ব- ১ কাপ
লবণ স্বাদমতো
ভাজার জন্য তেল।

প্রণালি

মাছে সব মসলা মাখিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। এবার ডিমে ডুবিয়ে নিন। তারপর ব্রেড ক্রাম্বে গড়িয়ে নিন। এবার ডুবোতেলে মচমচে করে ভাজুন।
গরম ভাত অথবা পোলাওয়ের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

ভেটকি মাছের কোপ্তাকারি

উপকরণ

কোপ্তার জন্য
ভেটকি মাছের ফিলে বাটা- ১ কাপ
আদাবাটা- ১ চা-চামচ
রসুনবাটা- আধা চা-চামচ
কাঁচামরিচ বাটা- আধা চা-চামচ
জিরাগুঁড়া- সিকি চা-চামচ
গরম মসলা- আধা চা-চামচ
লবণ স্বাদমতো
কর্নফ্লাওয়ার- ৩ টেবিল চামচ
ডিম- ১টা

গ্রেভির জন্য
আদাবাটা- ১ চা-চামচ
রসুনবাটা- ১ চা-চামচ
হলুদগুঁড়া- আধা চা-চামচ
মরিচগুঁড়া- ১ চা-চামচ
টক দই- ১ কাপ
তেজপাতা- ২টা
লবণ স্বাদমতো
জিরাগুঁড়া- আধা চা-চামচ
পেঁয়াজ বেরেস্তা- ২ টেবিল চামচ
পেঁয়াজবাটা- ২ টেবিল চামচ
পোস্তদানা বাটা- ১ টেবিল চামচ
বাদামবাটা- ১ চা-চামচ
কিশমিশ বাটা- ১ চা-চামচ
চিনি- আধা চা-চামচ
কাঁচামরিচ- ৩-৪টা
তেল- ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি

বাটা মাছের সঙ্গে কোপ্তার সব মসলা ও প্রয়োজনমতো কর্নফ্লাওয়ার দিয়ে বল বানিয়ে নিতে হবে। বলগুলো কর্নফ্লাওয়ারে গড়িয়ে ডুবোতেলে ভেজে নিন। গ্রেভির সব মসলা কষিয়ে টক দই দিয়ে মাছের কোপ্তায় দিয়ে দিন। সবশেষে চিনি ও কাঁচামরিচ দিয়ে নামিয়ে নিন।

ফিশ উইথ লেমন বাটার সস

উপকরণ
কোরাল মাছ ফিলে- ৪ টেবিল চামচ
ময়দা- ১/৪ কাপ
মাখন- ৫০ গ্রাম
লেবুর রস- অর্ধেক লেবুর
পার্সলে কুচি- ২ টেবিল চামচ
সিদ্ধ আলু, বিনস

প্রণালি

মাছের ফিলের উপর গুঁড়ো ময়দা ছড়িয়ে নিন। ফ্রাইং প্যানে মাঝারি আঁচে মাখন গলিয়ে নিন। মাছের ফিলে দিয়ে প্রতি পিঠ ২ মিনিট করে ভেজে নিন। হালকা সোনালি রং ধরবে। মাছ নামিয়ে বাকি মাখন প্যানে দিন, লেবুর রস দিন। আঁচ বাড়িয়ে ১ মিনিট নেড়ে নিন। এর মধ্যে পার্সলে কুচি দিয়ে নেড়ে নিন। ফিলের উপর এই সস ছড়িয়ে দিয়ে সিদ্ধ আলু ও বিনসের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

স্টিমড রেড স্ন্যাপার

উপকরণ
রেড স্ন্যাপার মাছের পিঠের অংশ- ৩০০ গ্রাম
আদা- আধা কাপ, লম্বা ঝুরি করে কাটা
লেমন গ্রাস- ৪টি, টুকরা করে নেওয়া
সাদা গোলমরিচের গুঁড়া- এক চিমটি
তিলের তেল- ১ চা-চামচ
লাইট সয়াসস- দেড় চা-চামচ
কচি পেঁয়াজকুচি- ১টি
লবণ- সিকি চা-চামচ
সাদা তেল- ২ টেবিল চামচ
লাল ক্যাপসিকাম- ১টি, লম্বা ঝুরি করে কাটা
বাঁধাকপির ঝুরি- ১ কাপ

প্রণালি

মাছ ধুয়ে পানি ঝরিয়ে কিচেন পেপার দিয়ে মুছে নিন। লবণ, তিলের তেল, সয়া সস ও গোলমরিচের গুঁড়া দিয়ে মাছের দুই পিঠই ভালো করে মেখে নিন। হাঁড়িতে পানি বসিয়ে তাতে অর্ধেক লেমন গ্রাস ও অর্ধেক ঝুরি করা আদা দিয়ে তার ওপরে স্টিমার বা ঝাঁঝরি রাখুন। এবার ঝাঁঝরির চারপাশে বাকি আদা ঝুরি ও লেমন গ্রাসগুলো দিয়ে মাঝখানে একটি স্টিলের বাটি বসিয়ে নিন। তাতে মেরিনেট করা মাছের টুকরাটা রেখে দিন। হাঁড়ির সমান মাপমতো ঢাকনা দিন। পানি ফোটার একটু পর চুলার আঁচ কমিয়ে ঢাকনা খুলে সবজিগুলো মাছের ওপর দিয়ে দিন। এতে বাকি লবণ ছিটিয়ে আবার ঢাকনা দিয়ে ঢেকে আঁচ বাড়িয়ে আরও পাঁচ-সাত মিনিট ফুটিয়ে নিতে হবে। এবারে চুলা বন্ধ করে পরিবেশনের ডিশের চারপাশে সবজি সাজিয়ে নিন। সাবধানে মাছের টুকরাটা উঠিয়ে সবজির মাঝখানে রেখে মাছের চামড়াটা টেনে উঠিয়ে আবার উল্টে দিয়ে মাঝখানের কাটা উঠিয়ে নিন। ২ টেবিল চামচ সাদা তেল ভালো করে গরম করুন। ধোঁয়া ওঠা শুরু করলে সেই তেল মাছের ওপর ঢেলে দিয়ে ভাত ও চিলি সসের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

বেকড লবস্টার

উপকরণ
গলদা চিংড়ি- ৫০০ গ্রাম
গোলমরিচ- সিকি চা-চামচ
মরিচগুঁড়া- আধা চা-চামচ
লেবুর রস- ১ চা-চামচ
সরিষা বাটা- আধা চা-চামচ
মাখন- ১ চা-চামচ
অলিভ অয়েল- ১ চা-চামচ
ডিমের হলুদ অংশ- ১ চা-চামচ
ব্রেড ক্রাম্ব- ২ টেবল চামচ
চিজ- ৫০ গ্রাম
লবণ- আধা চা চামচ।

প্রণালি

ফ্রাইপ্যানে মাখন ও অলিভ অয়েল অল্প গরম করুন। আস্ত লবস্টার পরিষ্কার করে লবণ, গোল মরিচ, মরিচগুঁড়া ও সরিষা বাটা দিয়ে মেরিনেট করে রাখুন। এরপর ফ্রাইপ্যানে অল্প ভেজে তুলে ফেলুন। এবার ফ্রাইপ্যানে বেডক্রাম্ব, ডিমের হলুদ, মাখন অংশ একত্রে মিশিয়ে সস তৈরি করে নিন। লবস্টার তৈরি করা সসের সঙ্গে মাখিয়ে চুলায় দিয়ে ৫ মিনিট রান্না করে নামিয়ে ফেলুন। এরপর লবস্টারের ওপরে চিজ দিয়ে মাইক্রোওভেনে দুই মিনিট বেক করে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

রূপচাঁদা কাবাব

উপকরণ
রূপচাঁদা মাছ- ৪টি
আদা বাটা- ১ চা-চামচ
রসুন বাটা- আধা চা-চামচ
হলুদ গুঁড়া- আধা চা-চামচ
কাঁচামরিচ বাটা- ১ চা-চামচ
গরম মসলা গুঁড়া- আধা চা-চামচ
ডিম- ১টি
লেবুর রস- ১ টেবিল চামচ
সয়া সস- ১ টেবিল চামচ
তৈল- ২ টেবল চামচ
লবণ পরিমাণমতো

প্রণালি

রূপচাঁদা মাছ বেছে ধুয়ে মাছে ছুরি দিয়ে দাগ কেটে নিন। রূপচাঁদা মাছে সব উপকরণ দিয়ে মাখিয়ে ৩০ মিনিট মাখিয়ে রাখুন। কাবাব চুলায় কয়লায় আগুন দিয়ে ১০ মিনিট দু’পিঠ সোনালি রং করে ঝলসে নেবেন। মাঝে মাঝে তৈল ব্রাশ করে দিবেন। ওভেনে ২০০ ডিগ্রি তাপে ১৫ মিনিট বেক করে নিন। সালাদ, সস বা চাটনির সঙ্গে পরিবেশন করুন।